State

রাজ্যে যাত্রা শুরু করল অত্যাধুনিক ক্ষমতা ও সুবিধার মেমু রেক ট্রেন

ব্যারাকপুর স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করল একটি মেমু রেক ট্রেন। যা অবশ্যই এক ঐতিহাসিক পদক্ষেপ। যাত্রীদের সুবিধার্থে কামরায় রয়েছে নানা ধরনের সুবিধা।

যাত্রী সুরক্ষা ও স্বাচ্ছন্দ্য, ২ বাড়াতে উদ্যোগী ভারতীয় রেল। সেটার আরও একবার প্রমাণ দিল তারা। ব্যারাকপুর থেকে এদিন এক বিশেষ মেমু রেক যাত্রা শুরু করল। যা রেলের ইতিহাসে এক বড় পদক্ষেপ।

ব্যারাকপুর স্টেশন থেকে এই বিশেষ সুবিধা সম্পন্ন মেমু রেকটি যাত্রা শুরু করে। পতাকা নাড়িয়ে ট্রেনটির যাত্রা শুরুতে হাজির ছিলেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং, রাণাঘাটের সাংসদ জগন্নাথ সরকার এবং রেলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা।

এঁদের উপস্থিতিতে ফুলে ফুলে সেজে ট্রেনটি যাত্রা শুরু করে। ব্যারাকপুর থেকে এটি রাণাঘাট পর্যন্ত যায়। লালগোলা স্পেশাল ট্রেনটির এই যাত্রা শুরু দেখতে উপস্থিত ছিলেন বহু মানুষ।

ট্রেনটির প্রতিটি কামরা বিশেষভাবে সজ্জিত। কামরা অনেক আধুনিক রূপে সাজানো। কামরায় রয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। বসার আসন গদি মোড়া। মাথার পিছনেও থাকবে গদি। যাতে যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে ভ্রমণ করতে পারবেন।

প্রতিটি কামরা একে অপরের সঙ্গে যুক্ত। এছাড়া থাকছে মডিউলার বায়ো টয়লেট। এতে যাত্রীদের যেমন সুবিধা হবে, তেমনই পরিবেশও রক্ষা পাবে। যাত্রীদের জিপিএস ভিত্তিক সরাসরি ঘোষণার বন্দোবস্তও থাকছে ট্রেনে। এছাড়া থাকছে কড়া সুরক্ষা বেষ্টনী।

গত মাসেই দেশে মেমু ট্রেন প্রথম চালু হয়েছে। এবার প্রথমবারের জন্য এ রাজ্যেও চলতে শুরু করল এই বিশেষ কামরার ট্রেন। এদিন ব্যারাকপুর থেকে রাণাঘাট পৌঁছতে ট্রেনটি সময় নেয় ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিটের মত। ট্রেনের চালকের জন্য সংরক্ষিত স্থানটিও অনেক আধুনিক যন্ত্রে সাজানো।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.