State

শান্তিনিকেতন ঘুরে বাউলের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজন অমিত শাহর

শনিবার মেদিনীপুরে জনসভা করেন অমিত শাহ। আর রবিবার দিনটা কাটালেন বোলপুরে একগুচ্ছ কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে। বোলপুরে একটি রোড শোও করেন তিনি।

কলকাতা : মেদিনীপুর থেকে শনিবার রাতে ফিরেছিলেন রাজারহাটের হোটেলে। রবিবার সকালে সেই হোটেল থেকে বেরিয়েই অমিত শাহ পৌঁছন দমদম বিমানবন্দরে। তারপর সেখান থেকে রওনা দেন বোলপুরের উদ্দেশে। সঙ্গে ছিলেন দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

শ্রীনিকেতন ফুটবল মাঠে তাঁর চপার অবতরণ করে। সেখান থেকে তিনি সোজা হাজির হন শান্তিনিকেতনে। শান্তিনিকেতন ঘুরে দেখেন অমিত শাহ। সঙ্গীত ভবনে পৌঁছে সেখানে ছাত্রছাত্রীদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। শান্তিনিকেতনের ভিজিটরস বুকে তিনি তাঁর উপলব্ধির কথা লেখেনও।

শান্তিনিকেতন থেকে বেরিয়ে তিনি পৌঁছন বাংলাদেশ ভবনে। সেখানে কিছুটা সময় কাটিয়ে পৌঁছন শ্যামবাটিতে। এই শ্যামবাটিতেই বাসুদেব দাস বাউলের বাড়িতে তাঁর মধ্যাহ্নভোজনের কথা ছিল।

সেখানে পৌঁছে প্রথমে বাসুদেব দাস বাউলের গলায় বাউল গান শোনেন অমিত শাহ। সঙ্গে ছিলেন বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। পরে বাসুদেব দাস বাউলের বাড়িতে দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা, মুকুল রায়দের সঙ্গে করে খাওয়া সারেন অমিত শাহ। ভাত, ডাল, ভাজা, পালংয়ের তরকারি সহযোগে মধ্যাহ্নভোজন সারার পর সেখান থেকে বোলপুর ডাকবাংলো মোড়ে পৌঁছন অমিত শাহ।

অমিত শাহর রোড শো-কে কেন্দ্র করে এখানে সকাল থেকেই সাজোসাজো রব ছিল। ডাকবাংলো মোড় থেকে চৌরাস্তা, এই প্রায় ৯০০ মিটার রাস্তা বিজেপির পতাকা, গেরুয়া রংয়ের সাজে ভরিয়ে ফেলা হয়েছিল।

বহু মানুষ সকাল থেকেই এখানে উপস্থিত ছিলেন। ছিল ব্যান্ড পার্টি, ঢাক ও অন্যান্য বাদ্যযন্ত্র নিয়ে উপস্থিত মানুষজন। বিকেল ৩টের পর এখান থেকেই রোড শো শুরু হয়।

অমিত শাহ সহ বিজেপির হেভিওয়েট নেতারা ছিলেন একটি গাড়ির মাথায়। সেখান থেকেই হাত নেড়ে সকলকে অভিবাদন জানাতে থাকেন অমিত শাহ। বিজেপির সেই তথাকথিত রথের সাজে সাজা গাড়ি এগিয়ে যেতে থাকে সামনের দিকে।

ওইটুকু রাস্তা যেতে কিন্তু বেগ পেতে হয় অমিত শাহের গাড়িকে। অনেক জায়গায় ভিড়ের জন্য থমকে যায় চাকা। রাস্তায় মানুষের মাথা ছিল ভর্তি। আশপাশের বাড়ির ছাদ, বারান্দাতেও তিল ধারণের জায়গা ছিলনা।

কেউ তুলছিলেন ছবি। কেউ ফুল ছুঁড়ছিলেন। এমন রোড শো দেখে কার্যতই এদিন আপ্লুত বিজেপি নেতারা। তাঁদের অনেককে বলতে শোনা যায় অমিত শাহ আসতেই এই দেখছেন, এরপর নরেন্দ্র মোদী এলে দেখবেন কী হয়!

বিকেলে রোড শো শেষে মাইক হাতে অমিত শাহ ফেরে একবার মমতা সরকারকে তোপ দাগেন। ভাইপো কটাক্ষ এদিনও শোনা যায় অমিত শাহর গলায়। কংগ্রেস, বামফ্রন্ট ও তৃণমূলকে সকলে এ রাজ্যে শাসনের সুযোগ দিয়েছেন। তাই এবার বিজেপিকে একবার সুযোগ দিতে বাংলার মানুষকে আহ্বান জানান অমিত শাহ।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.