Lifestyle

সুস্থ থাকতে এবার জিমে উলঙ্গ হয়ে শরীরচর্চা

দৈনন্দিন জীবনে প্রতিটা মানুষকে তাড়া করে বেড়াচ্ছে অবসাদ। শরীরে বাসা বাঁধছে নানা রোগ। গোদের উপর বিষফোঁড়া হয়ে কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলছে স্থূলতা। এই সবকিছু থেকে মুক্তি পেতে এখন বাচ্চা-বুড়ো, মহিলা-পুরুষ অনেকেই ভর্তি হচ্ছেন জিমে। উদ্দেশ্য, শরীর হোক ঝরঝরে, সঙ্গে তরতাজা থাকুক মন। দেহমন চনমনে করতে শরীরচর্চা কেন্দ্রগুলিতে থাকে নানারকমের ব্যবস্থা।

নিউ ইয়র্কের একটি শরীরচর্চা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রও সাধারণের জন্য নিয়েছে অভিনব এক পদক্ষেপ। যা কারও কারও কাছে অস্বস্তিকরও মনে হতে পারে। তবে শরীরচর্চাকে আরও ফলদায়ক করতেই ‘বিতর্কিত’ সেই ব্যবস্থার আয়োজন বলে দাবি ‘হ্যান্সন ফিটনেস’ নামের জিম সেন্টার কর্তৃপক্ষের। নিজেকে সুস্থ সবল রাখতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের জন্য রাখা হয়েছে ‘নগ্ন’ হয়ে শরীরচর্চার সুযোগ। আপাতত সপ্তাহে ৩ বার জিমে বিবস্ত্র হয়ে শরীরচর্চা করতে পারবেন ইচ্ছুক সদস্যরা। ৩টি ক্লাসের মধ্যে ২টি ক্লাসের ব্যবস্থা থাকবে আলাদা আলাদা লিঙ্গের জন্য। আর ১টি ক্লাসে যে কোনও লিঙ্গের সদস্যরা অংশগ্রহণ করতে পারবেন। আর যদি কেউ চান বিবস্ত্র শরীরচর্চাকে বিশেষভাবে উপভোগ করতে, তার জন্যেও রয়েছে আলাদা ক্লাসের ব্যবস্থা। কিন্তু বিবস্ত্র হয়ে শরীরচর্চা করার মধ্যে আলাদা কি সুবিধা থাকতে পারে? সে প্রশ্নেরও উত্তর রয়েছে ‘হ্যান্সন ফিটনেস’-এর কর্মকর্তাদের কাছে।

ব্যায়াম করার সময় শরীরে রক্ত সঞ্চালনের মাত্রা অনেকখানি বৃদ্ধি পায়। সাথে সাথে বেড়ে যায় শ্বাস-প্রশ্বাসের হার। দেহে যদি পোশাক না থাকে, তাহলে ত্বক দিয়ে অক্সিজেন প্রবেশের সম্ভাবনা অনেক বেশি বেড়ে যায়। যার ফলে শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ হয়ে ওঠে অনেক বেশি সক্রিয়। এমনটাই দাবি জিমের প্রশিক্ষকের। তবে কেউ যদি একেবারে উলঙ্গ হয়ে শরীরচর্চা করতে না চান, সেক্ষেত্রেও আছে বিশেষ ব্যবস্থা। বিশেষ ধরণের স্বচ্ছ অন্তর্বাস পরে শরীরচর্চার করার অনুমতি পাবেন তাঁরা।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button