Entertainment

আমাকে ছোঁবে না, আমি সেলেব্রিটি, নেটিজেনদের খোঁচা, তোপের মুখে রানু মণ্ডল

রানাঘাট স্টেশনের রানু মণ্ডলের জীবন ঘুরে গেছে অনেকটা রূপকথার গল্পের মত। মাত্র ২ মাসে স্টেশনে দিন কাটানো রানু এখন সেলেব্রিটি। ইতিমধ্যেই বলিউডের একটি সিনেমায় গান গেয়ে ফেলেছেন তিনি। প্রায় প্রতিদিনই তাঁর প্যাকড শিডিউল। দেশের কোণা কোণা থেকে ডাক পড়ছে তাঁর। ইন্টারনেটের হাত ধরে সেলেব্রিটি হয়ে ওঠা রানুকে এবার একহাত নিলেন নেটিজেনরাই। রীতিমত কড়া ভাষায় কটূক্তি করেছেন তাঁরা। কারণটা একটি ছড়িয়ে পড়া ভিডিও।

ভিডিওতে দেখা গেছে একটি দোকানে গিয়েছিলেন রানু মণ্ডল। তাঁকে দেখতে পেয়ে এগিয়ে আসেন তাঁর এক ভক্ত। তরুণীর দিকে তখন পিঠ করেছিলেন রানু। রানুকে ডাকার জন্য তাঁর কাঁধে হাত দেন ওই তরুণী। আবদার করেন একটা সেলফি তোলার। কিন্তু কাঁধে হাত পড়ায় তখন রানু রেগে আগুন। সোজা ঘুরে ওই তরুণীকে ধাক্কা দিয়ে কড়া গলায় প্রশ্ন করেন, ইসকা মতলব কেয়া হ্যায়? খুব স্বাভাবিকভাবে সকলের সামনে এভাবে প্রশ্নের মুখে পড়ে অপ্রস্তুত হয়ে পড়েন তরুণী। হেসে বিষয়টি ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই রানু মণ্ডলকে কড়া সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

নেটিজেনদের কেউ লেখেন, যখন রানুকে কেউ চিনত না তখন তিনি নিজের ভিডিও করতে দিতেন, আর এখন যখন তিনি সেলেব্রিটি তখন তিনি একজনকে তাঁর সঙ্গে সেলফি তুলতে দিতেই রাজি নন। অন্য একজন লেখেন, শিক্ষার প্রয়োজন রয়েছে। একজন শিক্ষিত মানুষই জানেন ভক্ত ও স্বনামধন্য হওয়ার মূল্য। একজন ভক্ত সেলফি তুলতে চাওয়ায় তাঁর সঙ্গে রানুর এমন ব্যবহারে বেজায় চটেছেন অনেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসি মস্করাও চলছে চুটিয়ে। ‘আমাকে ছোঁবে না, আমি সেলেব্রিটি’, লিখে রানুকে খোঁচা দিয়েছেন অনেকে। অনেক মিমও ছড়িয়ে পড়েছে রানুকে ট্রোল করে।

যদিও কয়েকজন আবার রানুর পাশে দাঁড়িয়ে সওয়াল করেছেন, সেলেব্রিটি হওয়ার মানে কী ব্যক্তিগত কিছু থাকতে পারেনা! রানু গায়ে এভাবে হাত দিয়ে ডাকা যদি তাঁর পছন্দ না হয় তাহলে তিনি বলতেই পারেন। তবে সব মিলিয়ে রানু মণ্ডলের জন্য এভাবে ট্রোল হওয়া খুব একটা ভাল কিছু নয় বলেই মনে করছেন অনেকে। কারণ এখন তিনি সবে নাম করেছেন। এই অবস্থায় ধূমকেতুর মত হারিয়ে যেতেও সময় লাগবেনা। যে নেটিজেনরা তাঁকে রানু মণ্ডল বানিয়েছেন, তাঁরাই যদি তাঁর আচরণে ক্ষুব্ধ হন তাহলে সেটা সুখের কথা নয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button