State

সাধারণের জন্য বন্ধ হল কামারপুকুর মঠ ও মিশনের দরজা

ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণের স্মৃতিধন্য কামারপুকুর। সেই কামারপুকুরে সারাবছরই ভক্তদের ঢল লেগে থাকে। কিন্তু সংক্রমণ বাড়তেই বন্ধ হল কামারপুকুরের মঠ ও মিশনের দরজা।

বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হল কামারপুকুরের রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের দরজা। ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণের জীবনের একটা অংশ এই কামারপুকুরেই কেটেছে। এখানেই রয়েছে তাঁর আদি বাড়ি। এখানেই অদূরে রয়েছে মিশনও।

বছরভর এখানে হাজির হন ভক্ত থেকে পর্যটক। এই পর্যটকদের কারণে এখানকার স্থানীয় অর্থনীতি চাঙ্গা থাকে। বহু মানুষের রোজগার বাঁচে থাকে এই পর্যটকদের ওপর।

কিন্তু করোনা থাবা বসানোর পর থেকে বারবার বন্ধ হয়েছে মঠ ও মিশনের দরজা। সংক্রমণ আশঙ্কায় রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশন দরজা বন্ধ করেছে পর্যটকদের জন্য। সোমবার ফের সেই একই পথে হাঁটল তারা।

Kamarpukur
কামারপুকুরে শ্রীরামকৃষ্ণের আদি বাড়ি, ছবি – সৌজন্যে – উইকিমিডিয়া কমনস

সোমবার ১০ জানুয়ারি থেকে সাধারণের জন্য বন্ধ হয়ে গেল রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের দরজা। ফলে ফের একবার রোজগার হারিয়ে আতান্তরে পড়লেন এখানকার অনেক মানুষ। যাঁদের জীবন জীবিকা দাঁড়িয়ে আছে কামারপুকুরের পর্যটনের ওপর।

এদিন বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মঠ ও মিশন বন্ধ থাকবে। কবে খুলবে তাও জানানো হয়নি। সংক্রমণ ফের নিয়ন্ত্রণে এলে তবেই দরজা খোলা হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ফলে অনেক ভক্ত এদিন ফিরে যেতে বাধ্য হন।

প্রসঙ্গত দ্বিতীয় ঢেউয়ে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর গত ১৯ অগাস্ট ফের খোলে মঠের দরজা। ভক্তরা প্রবেশাধিকার পান। কিন্তু তৃতীয় ঢেউ ফের সেই সুযোগ কেড়ে নিল ভক্তদের কাছ থেকে। প্রসঙ্গত অনেক মন্দিরও সংক্রমণের বাড়বাড়ন্তে বন্ধ হয়ে গেছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.