National

দেবতার পরনে পুলিশের পোশাক, মন্দিরে ভক্তের ভিড়

দেবতাদের পরনে যে পোশাক থাকে তা মোটামুটি পরিচিত। বিশেষ ধরনের রাজকীয় ঝলমলে পোশাক থাকে তাঁদের পরনে। কিন্তু পুলিশের পোশাকে দেবতাকে দেখা এই প্রথম।

খবরটা কানে যেতেই মন্দিরে উপচে পড়ে ভক্তের ঢল। এই রূপে তো দেখা মেলেনা দেবতার। তাঁর পরনে কিনা পুলিশের পোশাক! এমনটাও যে হতে পারে, মন্দিরের প্রতিষ্ঠিত দেবতার সাজ যে পুলিশের পোশাকও হতে পারে তা অনেকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেননা।

তবে যাঁরাই এসেছেন, মুগ্ধ হয়ে দেখেছেন দেবতার এই অচেনা রূপ। অনেকের বিশ্বাস, কেউ এবার থেকে অপরাধ করলে ঠাকুর কড়া হাতেই ব্যবস্থা নেবেন।

বারাণসী যদি বাবা বিশ্বনাথ বা মা অন্নপূর্ণার মন্দিরের জন্য বিখ্যাত হয় তাহলে সেই স্থান কালভৈরব মন্দিরের জন্যও বিখ্যাত। কালভৈরবকে কাশীর কোতোয়াল বলা হয়। অর্থাৎ কাশীর রক্ষাকর্তা।

সেই কালভৈরবকে এদিন দেখা যায় পুলিশের পোশাকে। মাথায় পুলিশের টুপি, বুকে পুলিশের ব্যাজ, বাঁ হাতে রূপোর ডাণ্ডা, ডান হাতে রেজিস্টার।

কালভৈরব মন্দিরের পুরোহিত মহন্ত অনিল দুবে জানিয়েছেন, এই প্রথম কালভৈরবকে এমন পোশাক পরানো হল। বিশেষ পুজোও দেওয়া হয়েছে। সেখানে কালভৈরবের কাছে বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের মানুষকে রক্ষা করার প্রার্থনা করা হয়েছে বলে জানান মহন্ত। তিনি আরও বলেন, দেশের সব মানুষের সুখ ও উন্নতির প্রার্থনাও করা হয়েছে বিশেষ পুজোয়।

ভক্তদের ধারনা এই যে কালভৈরবের হাতে রেজিস্টার আর পেন রয়েছে তার মানে তিনি কারও অভিযোগই উপেক্ষা করবেননা। আর যারা কোনও খারাপ কাজ করবে তাদের কড়া শাস্তি দেবেন কালভৈরব। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.