Sports

দর্শকশূন্য গ্যালারি, চোখ ধাঁধানো উদ্বোধনী, তিরঙ্গা বইলেন মনপ্রীত-মেরি

চোখ ধাঁধানো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখল গোটা বিশ্ব। কিন্তু টিভির পর্দায়। শুরু হল টোকিও অলিম্পিকস। ভারতের কুচকাওয়াজে পতাকা বইলেন মনপ্রীত-মেরি।

হওয়ার কথা ছিল গত বছর। কিন্তু তা করোনার জেরে পিছিয়ে যায়। তাই ২০২১ সালে হলেও টোকিও অলিম্পিকস-এর আসর বসল টোকিও ২০২০ নামেই।

শুক্রবার এই সর্বোচ্চ ক্রীড়া মহোৎসবের সূচনা হল চোখ ধাঁধানো অনুষ্ঠানে। চোখ ধাঁধানো অনুষ্ঠান চোখ ধাঁধাল টিভির পর্দায়। কারণ চর্মচক্ষে তার সাক্ষী হতে পারলেননা সাধারণ মানুষ।

করোনার জেরে গ্যালারি রইল দর্শকশূন্য। আর সেটাই থাকবে পুরো প্রতিযোগিতা ধরে। কারণ করোনার জেরে এবার অলিম্পিকস হবে দর্শকশূন্য অবস্থায়। এদিন আতসবাজির রোশনাই ছিল মনে রাখার মত। সেইসঙ্গে ছিল বর্ণময় অনুষ্ঠান।

উদ্বোধনের অনুষ্ঠান ছাড়াও যেদিকে সকলের নজর থাকে সেটা হল বিভিন্ন দেশের খেলোয়াড়দের প্রবেশ। সেই কুচকাওয়াজে ভারতের পতাকা বইলেন হকি খেলোয়াড় মনপ্রীত সিং ও বক্সার মেরি কম।

এবার অলিম্পিকসে ভারত সবচেয়ে বড় দল পাঠিয়েছে। এতজন ক্রীড়াবিদ এর আগে ভারতের হয়ে কোনও অলিম্পিকসের আসরে অংশ নেননি।

এদিনের কুচকাওয়াজে ভারতীয় খেলোয়াড়দের মুখে ছিল মাস্ক। হাতে ছিল দেশের পতাকা। এদিন যে দেশই কুচকাওয়াজ করে তাদের জাতীয় দলের পতাকা হাতে প্রবেশ করেছে তাদেরই দেশের পতাকার একটা রংকে বেছে সেই রংয়ের আলোয় গ্যালারি ভরে গেছে। যা দৃশ্যতই ছিল অভিনব।

এদিন উদ্বোধনের পরই শুরু হয়ে যায় অলিম্পিকসের ইভেন্ট। ভারত এবার সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ইভেন্টে নাম দিয়েছে। পদক সম্ভাবনাও বেড়েছে।

এবার ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা দেশের জন্য কটা পদক এনে দিতে পারেন সেদিকে তাকিয়ে গোটা দেশ।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button