Saturday , October 20 2018
Chocolate Day

দিল ‘চকোলেট চকোলেট’ হো গ্যায়া

ভালবাসা মানে যদি হয় ‘আর্চিস গ্যালারি’, ভালোবাসা মানে তবে এক বাক্স ‘চকোলেট’-ও। সারাবছর মনের মানুষের সাথে টুকটাক ঝাল-নোনতা-টক যাই চলুক, ৯ ফেব্রুয়ারি ‘চকোলেট ডে’-তে চকোলেট ছাড়া প্রেমটা যেন ঠিক জমে না। কারণ, দিনটি প্রেমিক-প্রেমিকাদের কাছে পরিচিত ‘চকোলেট দিবস’ নামে। ভালোবাসার মানুষকে উপহার দিতে ওইদিন ‘চকোলেট’-এর বিকল্প কোনও জুড়িদার নেই।



মাঘের শীত বিদায় নিতে নিতেই নহবতের মন কেমনের সুর জানান দেয় হৃদয় বন্ধনে বাঁধা পড়তে চলেছে শত শত মন। আবার ফেব্রুয়ারির বসন্তের রঙ উচাটন করে তোলে ভালোবাসার কাঙালদেরকেও। সামনেই ভ্যালেন্টাইন উৎসব। মনের মানুষকে ‘সারপ্রাইজ’ দিতে মানিব্যাগটা হাতড়ে দেখে নেন অনেকেই। মুখ ফুটে ভালবাসার কথা ফাঁকা হাতে বলতে কিছুটা যেন ইতস্তত বোধ কাজ করে। প্রেমের শুভারম্ভকে আরও জমিয়ে তুলতে দরকার পড়ে একটা যুতসই কিছু। মাথা চুলকে চুল ছেঁড়ার উপক্রমের হাত থেকে অনেককে বাঁচিয়ে দেয় একজনই। সে হল আমাদের সকলের প্রিয় ‘চকোলেট’। লিঙ্গ বা বয়স নির্বিশেষে সকলেরই খুব প্রিয় সে। সংখ্যায় তা সে একটাই হোক বা গোটা একটা ‘ফ্যামিলি প্যাক’।

মিষ্টি স্বাদের এই খাবার বিশেষ মানুষটার মুখে হাসি এনে দিতে বাধ্য। ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহের তৃতীয় দিনটিতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ তার জীবনের ‘বিশেষ’ ব্যক্তিটিকে উপহার দেন ‘চকোলেট’। স্বভাবতই মনে প্রশ্ন জাগে, কেন চকোলেট নিয়ে এমন উৎসবের হুজুগে মেতে ওঠেন বিশ্ববাসী? এই প্রশ্নের যদিও কোনও নির্দিষ্ট উত্তর দেওয়া সম্ভব নয়। কারণ, ভালোবাসার যেমন কোনও বিশেষ দিন হয় না, তেমনই ভালবাসাকে উপহার দেওয়ার জন্যেও প্রয়োজন পড়ে না কোনও নির্দিষ্ট দিন বা জিনিসের। তবে কথায় আছে, পেট থেকে বুকে ঠাঁই পাওয়ার পথ নাকি সহজতম। আর বড়রা বলেন, শুভ কাজের আগে নাকি মিষ্টি মুখ করা মঙ্গলের। তাই পছন্দের মানুষকে ভালোবাসার প্রস্তাব দেওয়ার পাশাপাশি তার হাতে লাল গোলাপ তুলে দেওয়ার পরেও মুখে লেগে থাকা একটা ভালবাসা মানেই বোধহয় চকোলেট। ‘ভ্যালেন্টাইন’-এর মন জয় করতে চকোলেটের মত সুস্বাদু জিনিসকে বেছে নিয়েছেন নতুন পুরাতন সব প্রজন্মেরই প্রেমিক-প্রেমিকা। সময় বদলায়, কিন্তু চকোলেট তার অনন্য অবস্থান ধরে রাখে চিরদিন।

৯ ফেব্রুয়ারি ‘চকোলেট’ দিন হিসেবে পালন করা হলেও বিশ্বের নানা স্থানের ক্যালেন্ডার কিন্তু বলছে অন্য কথা। একেক দিনে একেকরকম ভাবে পালন করা হয় এই ‘চকোলেট দিবস’। যা রীতিমত চমকে দেওয়ার মত। সেই চকোলেটময় ক্যালেন্ডার অনুসারে ৯ ফেব্রুয়ারি নয়, আগামী ৭ জুলাই ‘বিশ্ব চকোলেট দিবস’। আবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৩ সেপ্টেম্বরকে ‘ইন্টারন্যাশনাল চকোলেট ডে’-র মর্যাদা দিয়েছে। ব্রিটেনে অক্টোবরের ২৮ তারিখে দেশের বাসিন্দারা পালন করে থাকেন ‘জাতীয় চকোলেট দিবস’। এত গেল চকোলেটের দিন নিয়ে বিতর্কের দিক। চকোলেটের স্বাদ অনুযায়ীও একেকরকম দিনের অস্তিত্বের কথা শুনলেও অবাক বনে যেতে হয়। এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক ‘চকোলেট ডে’-র সেই আজব তালিকা।

হাল্কা তেতো-মিষ্টি চকোলেটের দিন – ১০ জানুয়ারি
দুধের স্বাদের চকোলেটের দিন – ২৮ জুলাই
সাদা রঙের চকোলেটের দিন – ২০ সেপ্টেম্বর
টুকরো টুকরো আকারের চকোলেটের দিন – ১৫ মে
আইসক্রিম চকোলেটের দিন – ৭ জুন
চকোলেট মিল্ক শেকের দিন – ১২ সেপ্টেম্বর
যে কোনও উপকরণ দিয়ে সাজানো চকোলেটের দিন – ১৬ ডিসেম্বর

যাঁদের যেমন স্বাদের চকোলেট ভাল লাগে তাঁরা কিন্তু ওই দিনগুলিতে তাঁদের প্রিয় মানুষকে উপহার হিসেবে দিতেই পারেন ‘চকোলেট’। তবে ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহের চকোলেট ডে-র আলাদা একটা জায়গা রয়েছে। গোলাপ দিয়ে প্রপোজ করার পর চকোলেটের স্বাদে মন ভোলানোর দিনটা কিন্তু আজ। তাই এদিনটা নাহয় হিসেব নিকেশ ভুলে চকোলেটের ছোঁয়ায় একাত্ম হোক দুটি প্রাণ।



Advertisements

About News Desk

Check Also

April Fool's Day

এল কোথা থেকে এপ্রিল ফুলস ডে? জেনে নিন সে গাথা

এপ্রিলের ১ তারিখ মানেই ‘এপ্রিল ফুলস ডে’। পরিচিত বা অপরিচিতদের পদে পদে বোকা বানানোর এদিন একেবারে মোক্ষম সুযোগ। যতরকমের ইচ্ছা ছলনা কর। সবেতেই এদিন সাত খুন মাফ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.