Health

করোনা টিকা নিয়ে মানুষকে হতাশ করলেন হু-এর দূত, ভরসা দিলেন বিজ্ঞানীরা

তিনি জানিয়েছেন, মানুষ যে ভাবছেন করোনা টিকা কয়েক মাসের মধ্যেই বার হয়ে যাবে, তেমনটা নাও হতে পারে। কারণ কিছু ভাইরাস অত্যন্ত জটিল প্রকৃতির হয়।

তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-এর অন্যতম প্রতিনিধি। নিজেও একজন বিশেষজ্ঞ। সেই ডেভিড নাবারু কিন্তু করোনা টিকা নিয়ে কোনও আশাব্যঞ্জক কিছু শোনালেন না। বরং তিনি জানিয়েছেন, মানুষ যে ভাবছেন করোনা টিকা কয়েক মাসের মধ্যেই বার হয়ে যাবে, তেমনটা নাও হতে পারে। কারণ কিছু ভাইরাস অত্যন্ত জটিল প্রকৃতির হয়। যার টিকা বার করা সহজ নয়।

ফলে এমন হতেই পারে যে টিকা বার হল না। সেক্ষেত্রে কিন্তু করোনা সংক্রমণের ভয় নিয়েই মানুষকে জীবনে চলতে হবে। মানুষের জীবনের অঙ্গ হয়ে যাবে এই করোনার পিছু তাড়া।

ডেভিড নাবারুর পরামর্শ, কারও করোনা হলে তাঁকে আইসোলেশনে রাখা। কারও করোনার উপসর্গ দেখা দিলেই তাঁকে আলাদা করা। তাঁর সংস্পর্শে থাকা মানুষকে আলাদা করার বন্দোবস্ত করা। বয়স্কদের দিকে যথেষ্ট নজর রাখা। হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তির জন্য যথেষ্ট বন্দোবস্ত আগে থেকে প্রস্তুত রাখার জন্য তৈরি থাকা দরকার। কারণ এমনটা হতেই পারে যে করোনাকে সঙ্গে নিয়েই মানুষকে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। জীবন চালাতে হবে।

ডেভিড ব্যক্তিগতভাবে এমন হতাশার কথা শোনালেও বিজ্ঞানীদের একটা বড় অংশ কিন্তু টিকা আবিষ্কার নিয়ে আশাবাদী। এই মুহুর্তে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ৪৪টি করোনা টিকার পরীক্ষা চলছে। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন করোনা টিকা বার করতে এক বছর থেকে দেড় বছর সময় লাগতে পারে। তবে টিকা বার হবেই বলে আশাবাদী তাঁরা।

৪৪টির মধ্যে ৪২টি প্রি-ক্লিনিক্যাল স্টেজে রয়েছে। ২টি ফেজ-১ এ প্রবেশ করে গেছে। এই অবস্থায় বিজ্ঞান কিন্তু করোনা টিকা আবিষ্কার নিয়ে কঠিন পরিশ্রম চালিয়ে যাচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button