Wednesday , July 24 2019
Pakistan
পাকিস্তানের কোয়েটায় বিস্ফোরণস্থল পর্যবেক্ষণ করছে সুরক্ষাবাহিনী, ছবি - আইএএনএস

আলুর বস্তায় লুকনো বোমা, বিস্ফোরণে মৃত ২০

বাজার এলাকা। সকালে বিভিন্ন বাজারে যেমন ভিড় থাকে তেমনই ভিড়। মানুষজন বাজার করতে ব্যস্ত। আচমকাই স্বাভাবিক জনজীবনের ছন্দ ভেঙে দিল এক ভয়ংকর বিস্ফোরণের বিকট শব্দ। বাজারের একটি দোকানের সামনে রাখা বস্তায় বিস্ফোরণ হওয়ার পর চারদিকে ছিটকে পড়ে দেহাংশ। হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। গোটা বাজার বারুদের গন্ধে ভরে যায়। চতুর্দিকে পোড়া জিনিসপত্র আর রক্তাক্ত দেহ। আর্তনাদে গোটা পরিবেশে আতঙ্কে ভরে ওঠে। বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় ২০ জনের। আহত ৪৮ হন জন। তাঁদের দ্রুত স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের কোয়েটা শহরের হাজারগঞ্জি এলাকায়। যেখানে সবচেয়ে বেশি হাজারা জনগোষ্ঠীর মানুষের বাস। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে পাকিস্তানে আশ্রয় নেওয়া হাজারা জনগোষ্ঠীর মানুষই ছিলেন এই বিস্ফোরণের মূল লক্ষ্য। ঘটনায় ৮ জন হাজারা সম্প্রদায়ের মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এই কোয়েটা শহরেই ৫ লক্ষের মত হাজারা জনগোষ্ঠীভুক্ত মানুষের বাস।

ঘটনার পর গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা হয়। দ্রুত শুরু হয় উদ্ধার কাজ। শুরু হয় তদন্তও। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে আলুর বস্তায় লুকনো ছিল আইইডি। সেটিতেই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। তবে এই বিস্ফোরণ রিমোট দিয়ে করা হয়েছে, নাকি টাইম বোম হিসাবে ব্যবহার হয়েছে তা এখনও পরিস্কার নয়। কোনও সংগঠন এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন। তিনি ঘোটা ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছেন।

(সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা)

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *