National

তুষার হামলায় মৃত দেশ রক্ষার অতন্দ্র প্রহরী

তুষার হামলায় মৃত্যু হল দেশের এক অতন্দ্র প্রহরীর। দেশের সীমান্ত রক্ষা করতে সজাগ সেনার ওপর হল তুষার হামলা। হামলায় আহত হয়েছেন আরও ২ জন।

শ্রীনগর : রাত তখন ৮টা। জম্মু কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলার ভারত-পাক সীমান্তের তানধর সেক্টরে তখন অতন্দ্র প্রহরায় রত ছিলেন ভারতীয় সেনা বাহিনীর জওয়ানরা।

হাড় হিম করা ঠান্ডায় তাঁরা দেশের সীমান্তকে রক্ষা করে চলেছেন বছরের প্রতিটি দিন। শুধু ওপার থেকে যখন তখন শত্রুপক্ষের গুলি বলেই নয়, আর এক বড় চ্যালেঞ্জ আবহাওয়া।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

চরম প্রতিকুল আবহাওয়াতেও তাঁরা তাঁদের কর্তব্য থেকে পিছু হঠেন না। তানধর সেক্টরে লাইন অফ কন্ট্রোলে প্রহরারত সেই সেনাকর্মীদের ওপর আচমকাই ধেয়ে আসে তুষার স্রোত।

পাহাড়ের ওপর থেকে নেমে আসা তুষারধসের হাত থেকে রেহাই পাননি ৩ জন সেনা। তুষার হামলা এড়িয়ে সরে যাওয়ার সময়টুকুও তাঁরা পাননি।

বরফের স্রোত এসে আছড়ে পড়ে তাঁদের ওপর। তারপর তার স্রোতের সঙ্গে ৩ সেনাকর্মীকে টেনে নিয়ে যেতে থাকে। তুষারধসের ধাক্কায় ২ জন সেনাকর্মী গুরুতর আহত হন। তাঁরা প্রাণে বেঁচে গেলেও একজন সেনাকর্মীর প্রাণ যায় তুষারধসে। তাঁকে যখন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তখনই তাঁর মৃত্যু হয়েছিল।

তুষারধসে আহত অবস্থায় প্রথমে ৩ জনকেই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে চিকিৎসকেরা নিখিল কুমার শর্মাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। বাকি ২ জনের চিকিৎসা চলছে।

কাশ্মীরের পাহাড়ি এলাকায় প্রচুর তুষারপাত হলে তারপর একটা তুষারধসের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। গত কয়েকদিন ধরেই কাশ্মীরের পাহাড়ি এলাকায় তুষারপাত হচ্ছে। সাদা বরফের চাদরে ঢেকে গেছে পাহাড়ি এলাকা।

আবহাওয়া দফতর পরিস্থিতি দেখে আগেই সতর্ক করেছিল যে যে কোনও মুহুর্তে তুষারধস নামতে পারে। আর ঠিক তাই হল। মঙ্গলবার রাতে নেমে এল তুষারধস। কেড়ে নিয়ে গেল এক ভারতীয় সেনার প্রাণ।

যদিও এটা প্রথম নয়। এর আগেও ভারতীয় সেনাদের তুষারধসের কবলে পড়ে মৃত্যু হয়েছে। শীতকালে এ এক বড় চ্যালেঞ্জ ভারতীয় সেনার সামনে। কিন্তু তাঁরা প্রহরা থেকে পিছপা হন না। কঠিন পরিস্থিতিতেও দেশের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সেনাকর্মীরা তাঁদের কাজ চালিয়ে যান। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *