National

রাতের অন্ধকারে সীমানা পেরিয়ে ঢুকে বস্তা ফেলে পালাল পাক ড্রোন

রাতের অন্ধকারে সীমানা পার করার অভ্যাস পাকিস্তানের বহুদিনের। কখনও সন্ত্রাসবাদীদের ঢুকতে সাহায্য করা তো কখনও ড্রোন ঢোকানো। সবই চালাতে থাকে তারা।

সোমবার ঘড়ির কাঁটায় রাত তখন পৌনে ৩টে। হিমালয়ের কোলে নিশুতি রাত। চারধারে পাহাড় আর জঙ্গল অন্ধকারে তখন আরও ভয়ানক। তারমধ্যেই ২ চোখের পাতা এক না করে প্রহরায় ছিলেন বিএসএফ জওয়ানরা।

ভারত পাকিস্তান সীমান্ত বলে কথা। পাকিস্তানের দিক থেকে কখন সন্ত্রাসবাদী থেকে ড্রোন বা অন্য কোনও অনুপ্রবেশের চেষ্টা হয় বলা মুশকিল। হলও সেটাই।

একটি ড্রোনকে পাকিস্তানের দিক থেকে লুকিয়ে সীমানা পার করে ভারতে ঢুকে পড়তে দেখেন জওয়ানরা। দেরি করেননি তাঁরা। পাক ড্রোনটিকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করে বিএসএফ।

পাকিস্তানের ড্রোনটিতে ঝুলছিল একটি বড় বস্তা। বেগতিক বুঝে সেটি মেঝেতে ফেলে দেওয়া হয় ড্রোন থেকে। তারপর ড্রোনটি দ্রুত ফিরে যায় পাকিস্তানে। গুলি ড্রোনটির ক্ষতি না করতে পারলেও ওই বস্তা ড্রোনটি সঙ্গে নিয়ে যেতে পারেনি।


এদিকে বস্তার খোঁজে অমৃতসরের কাছে ভারত পাক সীমান্তের পল মোরান এলাকায় তন্নতন্ন করে খোঁজ শুরু করেন জওয়ানরা। খোঁজ পাওয়াও যায়। বস্তাটি উদ্ধার করে খোলার পর রীতিমত চমকে যান সকলে।

বস্তা থেকে উদ্ধার হয় ১টি পিস্তল, ৮ রাউন্ড গুলি এবং ৩ কেজি হেরোইন। নিষিদ্ধ মাদক এবং আগ্নেয়াস্ত্র ড্রোনটি ঠিক কার কাছে কোথায় পৌঁছতে আসছিল তা পরিস্কার নয়। তবে তা ভারতে ঢুকেছিল ওই বস্তা পৌঁছে দেওয়ার উদ্দেশ্যেই বলে মনে করা হচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button