Entertainment

সুশান্তের মৃত্যুর পর বিস্ফোরক কঙ্গনা রানাওয়াত

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর কার্যত রাগে ফেটে পড়লেন কঙ্গনা রানাওয়াত। গোটা বলিউডকে একহাত নিয়েছেন তিনি।

মুম্বই : সুশান্ত সিং রাজপুত বেশ কিছুদিন ধরেই অবসাদে ভুগছিলেন। তাঁর ঘর থেকে যে প্রেসক্রিপশন পাওয়া গিয়েছে তাতে পুলিশের ধারণা তিনি অবসাদ কমাতে ওষুধ খেতেন। কারও সঙ্গে বেশি কথা বলাও নাকি ইদানিং বন্ধ করে দিয়েছিলেন। এমনই জানাচ্ছেন সুশান্তের বন্ধুরা। একা থাকতেন। ঘরেই বন্দি থাকা পছন্দ করতেন। বান্ধবীর সঙ্গেও সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছিল। ফলে মানসিক অবসাদ থেকে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন সুশান্ত সিং রাজপুত। মোটামুটি এমনই একটি বিষয় তাঁর মৃত্যুর পর সামনে এসেছে। যা একটা বিষয়কে প্রমাণ করে যে সুশান্ত মানসিক দিক থেকে দুর্বল ছিলেন। আর সেখানেই আপত্তি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের। তিনি মনে করছেন সুশান্ত মোটেও দুর্বল চিত্তের মানুষ ছিলেন না।

Kangana Ranaut
ফাইল : কঙ্গনা রানাওয়াত, ছবি – আইএএনএস

কঙ্গনা প্রশ্ন তুলেছেন যে ছেলেটা পড়াশোনায় ব়্যাঙ্ক করত, সে মানসিক দিক থেকে দুর্বল হতে পারেনা। কঙ্গনা আরও মনে করেন সুশান্তের প্রতিভাকে সম্মান জানানো হয়নি। তাঁর সিনেমাগুলিকে সেভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়নি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে। ক্ষোভ উগরে তিনি বলেছেন, ‘গলি বয়’ পরপর পুরস্কার পায়। অথচ সুশান্তের কেদারনাথ, ছিছোড়ে, এমএস ধোনি: দ্যা আনটোল্ড স্টোরির জন্য সুশান্ত পুরস্কৃত হন না।

কঙ্গনা আরও জানিয়েছেন, সুশান্তের শেষের দিকে পোস্টগুলি পড়লে বোঝা যায় যে তিনি কার্যত তাঁর সিনেমাগুলি দেখার জন্য অনুরোধ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন এই ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর কোনও গডফাদার নেই। সুশান্তকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা হয়েছে যে তাঁর দ্বারা কিছু হবে না। আর সুশান্ত সেটাই অবশেষে বিশ্বাস করেছেন। কঙ্গনা এই ঘটনার পিছনে অন্য কোনও রহস্য থাকতে পারে বলেও ইঙ্গিত করেছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button