Wednesday , July 24 2019
Election
ভোটদানের পর ভোটারের আঙুলে কালির দাগ, ছবি - আইএএনএস

ছোটখাটো অশান্তি বাদে রাজ্যে প্রথম দফার ভোট মিটল শান্তিতেই

ভোটের সকাল। সকাল থেকেই রাজ্যের ২ কেন্দ্র কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারের বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রের সামনে ভোটারদের লাইন দীর্ঘ হতে থাকে। সকাল ৭টা বাজতেই খুলে যায় বুথের দরজা। শুরু হয় ভোটগ্রহণ। যদিও তার আগেই অনেক জায়গায় দীর্ঘ লাইন পড়ে গিয়েছিল। কোচবিহারের কয়েকটি বুথে ইভিএম সমস্যার জন্য ভোট সকালে নির্দিষ্ট সময়ে শুরু হতে পারেনি। ভোটকে কেন্দ্র করে সব দলের কর্মীদেরই এদিন সকাল থেকে রাস্তায় দেখা গেছে। ফলে একটা উত্তাপ তো কাজ করছিলই। এইটুকু উত্তাপ থাকে ভোটের দিন।

সকাল যত গড়াতে থাকে বিভিন্ন জায়গা থেকে টুকটাক অশান্তির খবর আসতে থাকে। দিনহাটায় একটি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। কয়েকজন আহতও হন। তবে ভোট চলেছে। কোনও বুথে ভোট বন্ধ করতে হয়েছে এমন অশান্তি হয়নি। এদিন কোথাও উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে পোলিং এজেন্টকে বুথে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ তো কোথাও উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূল কর্মীদের মারধরের অভিযোগ।

কোচবিহারে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। আবার দিনহাটায় একটি ভোটকেন্দ্রের সামনে তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক। দিনহাটাতেই সকালে তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে প্রবল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বোমাও পড়ে। হাতে বাঁশ, লাঠি নিয়ে ছুটতে দেখা যায় ২ দলের সমর্থকদের। তবে সেই সংঘর্ষ কিছুক্ষণের মধ্যেই আয়ত্তে আসে।

কয়েকটি বুথে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ উঠেছে। কিছু জায়গায় ভোট দিতে আসার সময়ই ভোটারদের ভয় দেখানোর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। দিনহাটার মাতালহাটে পথ অবরোধ করেন বিজেপি সমর্থকেরা। মাথাভাঙায় দুপুরে ফরওয়ার্ড ব্লকের প্রার্থী গোবিন্দ রায়ের গাড়িতে হামলার অভিযোগ ওঠে।

এভাবেই টুকটাক অশান্তি সারাদিনই হয়েছে। তবে কোনও ঘটনার খবরই বড় আকার নেয়নি। ফলে ভোট মিটেছে শান্তিতেই। বিকেল ৫টার পরেও অবশ্য কিছু বুথে ভোটারদের লাইন ছিল। ফলে সেখানে ভোটগ্রহণ চলেছে তারপরেও। তবে বিকেল ৫টার পর আর কাউকে নতুন করে ভোটের লাইনে দাঁড়াতে দেয়নি পুলিশ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *