Kolkata

এখন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সারাদিনের সঙ্গী শ্রী শ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত, রয়েছে আক্ষেপও

জেলে মানিয়ে নেওয়ার পর্ব শুরু করেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কীভাবে দিনগুলো কাটাবেন তা নিজের মত সাজিয়ে নিচ্ছেন তিনি। আপাতত তাঁর সঙ্গী আধ্যাত্মিক গ্রন্থ।

স্কুল সার্ভিস কমিশনে নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডের অভিযোগে আদালতের নির্দেশে জেল হেফাজতে থাকা প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবার জেল জীবনে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা শুরু করলেন। জেলে সারাদিন কাটানোর জন্য এবার তিনি বেছে নিলেন ধর্মীয় গ্রন্থকে। সঙ্গে রেখেছেন কাগজ কলম।

পার্থবাবুর কৌশলী তাঁকে একটি শ্রী শ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত জেলে দিয়ে এসেছেন। সেই বই নিয়েই আপাতত সারাদিন পড়ে আছেন তিনি। অধিকাংশ সময় ওই বইটি পড়ে কাটাচ্ছেন। সেইসঙ্গে মাঝেমধ্যে লিখছেন। কাগজে লিখে রাখছেন তাঁর জেলে কাটানো সময়ের দিনলিপি।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

এভাবেই নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন তিনি। হয়তো পার্থবাবু বুঝতে পারছেন যে তাঁকে এই গারদের পিছনে কতদিন যে কাটাতে হবে তা পরিস্কার নয়। তাই যত দ্রুত তিনি পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারবেন ততই তাঁর জন্য সুবিধে হবে।

প্রসঙ্গত পার্থবাবুকে শ্রী শ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত দেওয়া বা কাগজ কলম দেওয়া জেল কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েই করেন তাঁর কৌশলী সুকন্যা ভট্টাচার্য।

পার্থ চট্টোপাধ্যায় শুক্রবার থেকে জেলে বন্দি। তারপর থেকে তিনি মাত্র একবারই দাড়ি কামিয়েছেন। জেলের ক্ষৌরকর্মের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি তাঁর দাড়ি কামিয়ে দেন। সারাদিনে হাতে গোনা কথা তিনি বলছেন।

তবে একবার নাকি তিনি জেলের এক আধিকারিককে আক্ষেপের সুরেই বলেছেন উচ্চপদের কর্পোরেট চাকরি ছেড়ে রাজনীতিতে যুক্ত না হলে তাঁকে এই দিনটা দেখতে হতনা। এখন দিনভর চুপচাপই থাকেন। বই পাওয়ার পর এখন তাতেই মনোনিবেশ করেছেন।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *