Mythology

শিবরাত্রি ব্রতপালনের নিয়ম – শিবশংকর ভারতী

অনেক সময়েই খানিক উদ্বেগ ও অস্বস্তির সুরে অনেককেই বলতে শোনা যায়, ‘শিবরাত্রিতে কি সারা রাত জাগতে হয়? প্রতি প্রহরে কি শিবের মাথায় জল ঢালতে হয়? কতক্ষণ উপবাসে থেকে কখন খাওয়া যাবে? শিবরাত্রে কি খাওয়ার নিয়ম?’

শিবরাত্রের ব্রতপালন নিয়ে নানান জিজ্ঞাসা ও মানসিকদ্বন্দ্ব ‘ঠিক পালন করা হল তো?’ এমনটা বহু বছর দেখে আসছি অসংখ্য ব্রতপালনকারীদের মধ্যে।

এই ব্রতপালন প্রসঙ্গে সহজ সরল ও সঠিক নিয়মের কথা তুলে ধরছি। ভারতবরেণ্য মহাপুরুষ ব্রজবিদেহী মহন্ত ও চতুঃসম্প্রদায়ের শ্রীমহন্ত ১০৮ স্বামী সন্তদাস বাবাজি মহারাজ বলেছেন, ‘শিবরাত্রির দিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপবাস থেকে পরে শিবলিঙ্গে জল, বেলপাতা, কিছু ফল, বিশেষ করে বেল দিয়ে পুজো করে, ফলমূল ইত্যাদি ফলারি বস্তু উপাস্য দেবতা বা গুরুকে নিবেদন করে প্রসাদ গ্রহণ করলেই শিবরাত্রির ব্রত সিদ্ধ হয়।

যার বিশেষ সামর্থ্য আছে সে সারা রাত উপবাসে থেকে ভজন করে রাত জাগতে পারে। যদি কেউ রাত না জাগে তাতে কোনও দোষ হয় না’। এই ব্রতপালন নারীপুরুষ নির্বিশেষে সকলেই করতে পারে। এতে অশেষ কল্যাণ হয়।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button