Sports

জঘন্য ব্যাটিংয়ে পঞ্জাবের কাছে হারল কলকাতা

গোটা টিম যদি মনে করে প্রতিদিনই সুনীল নারিন আর ক্রিস লিন জেতাবেন, আর বাকি টিমটা ডাগ আউটে বসে হাওয়া খাবে, তাহলে যে ফলটা হয় তা এদিন হাতেগরম টের পেল কলকাতা। ক্রিস লিন না থাকলে পঞ্জাবের করা ১৬৭ রান তাড়া করতে গিয়ে একটা অতি লজ্জার হারের মুখে পড়তে হত। অন্তত লিনের কাঁধে ভর করে সেই লজ্জার বোঝা বইতে হয়নি কলকাতাকে। ১৪ রানে হার দিয়ে মোহালি ছেড়েছে গৌতমের দল। এদিন প্রথমে ব্যাট করে শুরু থেকেই নিয়মিত উইকেট পড়তে থাকে পঞ্জাবের। একমাত্র ম্যাক্সওয়েলের ঝোড়ো ইনিংস আর ঋদ্ধিমান সাহার সুচিন্তিত ব্যাটিংয়ের জোড়ে ১৬৮ অব্ধি পৌঁছতে সক্ষম হয় পঞ্জাব। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ফের এদিন ঝোড়ো ইনিংস শুরু করেন সুনীল নারিন-ক্রিস লিন জুটি। ফলে প্রথম ৬ ওভারে দল ভাল জায়গায় পৌঁছে যায়। ওভারপিছু ৬-৭ রান করে নিয়ে মারার বল মারলে রান অনায়াসে উঠে আসে। এই অবস্থায় গৌতম গম্ভীরকে পিচে বল হাতড়াতে দেখা গেল। ফলে একটা মারতে গিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরত। মাঝখান থেকে একগুচ্ছ ডট বল দিয়ে দলকে ব্যাটফুটে পাঠিয়ে দিয়ে গেলেন অধিনায়ক। রবীন উত্থাপ্পা সেট হওয়া ফেলে প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে চমক দিতে গিয়ে প্রথম বলেই আউট। এরপর ক্রিস লিন চেষ্টা চালিয়ে যান। মণীশ পাণ্ডেকেও এদিন নড়বড়ে লেগেছে। শেষে দিকে সামান্য আশার আলো দেখা দিলেও এই ২ সেট ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার পর খেলাটা কেবল নিয়মরক্ষায় গিয়ে ঠেকে। কলকাতার হার আগেই হয়ে গিয়েছিল। এমনকি ইউসুফ পাঠানও এদিন প্রথম থেকেই ব্যাট চালাতে গিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। এদিনের জয়ের ফলে প্রথম চারে ঢোকার জন্য রাস্তা খুলে রাখল পঞ্জাব। অন্যদিকে কলকাতার প্রথম ২টি দলের মধ্যে থাকার আশা কার্যত এদিন শেষ হয়ে গেল। আগামী শনিবার লিগের শেষ ম্যাচে কলকাতার প্রতিপক্ষ লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা দল মুম্বই।

 

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button