Sports

১০ বছরের খরা কাটিয়ে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন কেকেআর

১০ বছরের খরা কেটে গেল। ২০১৪ সালের পর ২০২৪ সালে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হল কেকেআর। হায়দরাবাদকে এদিন কোনও বিভাগে দাঁড়াতে না দিয়ে ট্রফি ঘরে তোলে শাহরুখের ছেলেরা।

১০ বছর পর ফের কলকাতার ঘরে এল আইপিএল ট্রফি। শাহরুখের বেগুনি ব্রিগেড এদিন টস হারা বাদ দিয়ে আর কোনও বিভাগেই হায়দরাবাদের কাছে হারেনি। আইপিএল ফাইনালে সবচেয়ে কম রানের খেলায় জয় ছিনিয়ে নেয় কলকাতা।

এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন হায়দরাবাদের অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। ব্যাট করতে নেমে কিন্তু শুরু থেকেই ধসের মুখে পড়তে হয় কমলা ব্রিগেডকে।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

স্টার্ক প্রথম ওভারেই ফিরিয়ে দেন ফর্মে থাকা অভিষেক শর্মাকে। অসামান্য বলে বোল্ড করেন তিনি। তারপর ফিরতে হয় হায়দরাবাদের ব্যাটিং স্তম্ভ বা রান মেশিন ট্রাভিস হেডকে। তাঁকে ফেরান বৈভব অরোরা।

মাত্র ৬ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া হায়দরাবাদের উইকেট পতন কিন্তু অব্যাহত ছিল। এরপর ক্যাচ তুলে ফেরেন রাহুল ত্রিপাঠি। এরপর কিছুটা খেলা ধরার চেষ্টা করেন নীতীশ কুমার রেড্ডি।

তারপর কিছুটা করে রান তোলার চেষ্টা হলেও আউটও হতে থাকেন খেলোয়াড়েরা। এরপর ফেরেন মার্করাম। এরপর শাহবাজ আহমেদ এবং আবদুল সামাদ ফেরেন। ক্ল্যাসেন ফেরার পর হায়দরাবাদের স্কোর দাঁড়ায় ৯০ রানে ৮ উইকেট।

এখানে ১০০ রানের মধ্যেই হয়তো শেষ হতে পারত তাদের ইনিংস যদি নারিনের বলে কামিন্সের তোলা ক্যাচ ফেলে না দিতেন স্টার্ক। ফলে প্যাট কামিন্স প্রাণ ফিরে পেয়ে কিছুটা রান যোগ করেন।

দলের ১১৩ রানের মাথায় জয়দেব উনাদকাট এবং কামিন্স আউট হয়ে যান। কলকাতার সামনে জেতার জন্য লক্ষ্য দাঁড়ায় ১১৪ রান।

আইপিএল ফাইনালের ইতিহাসে সবচেয়ে কম রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কলকাতা নাইট রাইডার্স কিন্তু তার নিজের মেজাজেই ব্যাট করতে থাকে। বার্থডে বয় এবং কলকাতার অন্যতম ভরসা নারিন এদিন প্রথম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে পরের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন।

এরপর কিন্তু কেকেআর আর পিছন ফিরে তাকায়নি। রহমতুল্লা গুরবাজ এবং ভেঙ্কটেশ আইয়ার মিলে ম্যাচে চার আর ছয়ের বন্যা বইয়ে দেন। ক্রমশ হাত থেকে খেলা ফস্কে যাচ্ছে তা বুঝতে পারে হায়দরাবাদও।

এদিন ভয়ংকর ব্যাট করতে থাকেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার। দলের ১০২ রানের মাথায় গুরবাজ এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন। বাকি ১২ রান তুলে নেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার এবং শ্রেয়স আইয়ার।

১০.৩ ওভারেই ম্যাচ জিতে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায় কলকাতা। ১০ বছরের খরা তার সঙ্গে কাটল। ২০১৪ সালের পর ২০২৪ সালে ফের আইপিএল ট্রফি ঘরে তুললেন শাহরুখ খানের ছেলেরা।

খেলা শেষে মাঠে আনন্দে ফেটে পড়েন কেকেআর খেলোয়াড়েরা। জয়ের কারিগর গৌতম গম্ভীরকে জড়িয়ে ধরেন সকলে। শাহরুখ খান অসুস্থ হলেও পরিবারের সঙ্গে এদিন চেন্নাইয়ের স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন। তিনিও জয়ের উৎসবে মেতে ওঠেন নিজস্ব ভঙ্গিতে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button