SciTech

মানুষের মল ঘাঁটার কাজ পেল রোবট

মানুষের মল আবদ্ধ থাকলে তা থেকে তৈরি হয় এক ধরনের বিষাক্ত গ্যাস। যাতে বহু মানুষের প্রাণ যায়। এবার মানুষের সেই মল ঘাঁটার কাজ পেল রোবট।

মানুষের মল ঘাঁটা ও তা সাফ করার জন্য অন্য মানুষকে কাজে লাগানো যাবে‌ না। এই নিষেধাজ্ঞা খাতায় কলমে থাকলেও ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে সেপটিক ট্যাঙ্কে মানুষ নেমে তা সাফ করার কাজ করেন। যা করতে গিয়ে প্রতিবছর শতাধিক মানুষের প্রাণ যায় সেপটিক ট্যাঙ্কের বিষাক্ত গ্যাসে।

সেপটিক ট্যাঙ্কেই জমা হয় মানুষের মল। সেই মল সেপটিক ট্যাঙ্কের মধ্যে নেমে ঘাঁটা অবশ্য একজন মানুষের কাজ হওয়া উচিত নয়।‌

সেকথা মাথায় রেখেই এবার এগিয়ে এলেন আইআইটি মাদ্রাজের ছাত্ররা। তাঁদের একটি প্রোজেক্টই ছিল এই বিষয়ে নতুন কিছু ভাবার। তা তাঁরা করেছেনও।

আইআইটি মাদ্রাজের ছাত্ররা একটি রোবট তৈরি করেছেন। যা সেপটিক ট্যাঙ্কের ভিতরে প্রবেশ করবে। তারপর সেই রোবটই সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিস্কার করে দেবে। এজন্য মানুষকে কাজে লাগানোর প্রয়োজন পড়বে না।

রোবটটি সেপটিক ট্যাঙ্কে ঢুকে অপেক্ষাকৃত শক্ত মলকে তার ব্লেড দিয়ে পুরো মাখিয়ে দেবে। তারপর তা বিশেষ ধরনের সাকশন প্রযুক্তি দিয়ে পাম্প করে বার করে আনবে।

রোবটটির নাম দেওয়া হয়েছে হোমোএসইপি। প্রথমে এই রোবট দিয়ে সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিস্কার করার কাজ শুরু হবে তামিলনাড়ুতে। তারপর তা গুজরাট ও মহারাষ্ট্রেও শুরু হবে। এটাই পরিকল্পনা করা হয়েছে।

এতে বহু মানুষের জীবন প্রতি বছর বেঁচে যাবে। সেইসঙ্গে সেপটিক ট্যাঙ্কে ঢুকে মানুষের মল পরিস্কার করার মত কাজ আর আর একজন মানুষকে করতে হবেনা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.