Entertainment

সোনু সুদকে পদ থেকে সরিয়ে দিল কমিশন

অভিনেতা সোনু সুদ অভিনয় প্রতিভার জন্য নয় বর্তমানে তাঁর মানবিক মুখের জন্য আরও বেশি জনপ্রিয়। তাঁকে নিয়ে এবার বড় সিদ্ধান্ত নিল নির্বাচন কমিশন।

ভারতে ২০২০ সালের মার্চের শেষে দিক। গোটা দেশজুড়ে নেমে আসে এক অন্ধকার সময়। গৃহবন্দি মানুষ দিশেহারা, আতঙ্কিত। কাজ হারিয়ে সে সময় মাইলের পর মাইল পথ পরিবার নিয়ে হেঁটে অতিক্রম করে অনেক মানুষ পৌঁছনোর চেষ্টা করেন নিজেদের গ্রামে, বাড়িতে। এঁরা অধিকাংশই ছিলেন ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতে যাওয়া খেটে খাওয়া মানুষ।

যানবাহন নেই। পকেটে পয়সা নেই। সেই অবস্থায় বাড়ি ফিরতে চাওয়া মানুষগুলো সেদিন পাশে পেয়েছিলেন এক অভিনেতাকে। নাম সোনু সুদ।

পর্দায় মূলত ভিলেনের চরিত্রে অভিনয় করা সোনুর মুখ পরিচিত ছিল ঠিকই, কিন্তু তাঁর হৃদয় যে মানুষের জন্য এতটা কাঁদে তা মানুষ জানতে পারলেন সেদিন। পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্বিষহ কষ্ট লাঘব করতে নিজের পকেটের কড়ি খরচ করে সোনু এগিয়ে আসেন এঁদের বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার বন্দোবস্ত করতে।

তারপর একের পর এক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে দিতে দেশের মানুষের বড় ভালবাসার জায়গা অজান্তেই দখল করে নিয়েছিলেন তিনি। এখন সোনু দেশের মানুষের কাছে এক মানবিক মুখ।

সোনু সুদের সেই মানবিক চেতনাকে সম্মান জানিয়ে একটি সিদ্ধান্ত গত নভেম্বরে নিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। আর সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এল জানুয়ারির শুরুতে।

নির্বাচন কমিশন গত নভেম্বরে সোনু সুদকে পঞ্জাবের আইকন হিসাবে ঘোষণা করে। তাঁকে সেভাবেই সামনে আনে কমিশন। সোনু নিজেও পঞ্জাবের বাসিন্দা। সেই সুবাদে তাঁকে পঞ্জাব রাজ্যের আইকন করাকে স্বাগত জানিয়েছিলেন সকলে।

কিন্তু কোনও এক অজ্ঞাত কারণে গত ৪ জানুয়ারি সেই সম্মানীয় পদ থেকে সোনুকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। এর বেশি কিছু অবশ্য জানায়নি কমিশন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.