Kolkata

শ্রাবন্তী, পার্নো, পায়েলদের নগরের নটি বললেন তথাগত রায়

বিজেপির তারকা প্রার্থীদের মধ্যে ছিলেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, পার্নো মিত্র, পায়েল সরকাররা। তাঁদের নগরের নটি বললেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়।

রাজ্যে বিজেপির শোচনীয় হারের জন্য বিজেপি দলের অন্দরেই এখন দোষারোপ, পাল্টা দোষারোপের পালা চলছে। অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন টিকিট বিতরণ নিয়ে।

এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় খোলাখুলি সেই প্রসঙ্গ তুলে দলের বিরুদ্ধেই কার্যত ক্ষোভ উগরে দিলেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। কেন অভিনেতা, অভিনেত্রীদের টিকিট দেওয়া হল সে প্রশ্ন তুলতে গিয়ে তিনি সরাসরি শ্রাবন্তী, পার্নো, পায়েলদের নগরের নটি বলে সম্বোধন করেছেন।

এঁদের বিজেপির টিকিট পাওয়ার মত কোনও গুণ নেই বলেও দাবি করেছেন তিনি। তথাগতবাবু এমনও প্রশ্ন তুলেছেন যাতে দলের টাকা নয়ছয়ের ইঙ্গিত রয়েছে।

তথাগতবাবু জানিয়েছেন, কেউ বিজেপি প্রার্থী হলে তাঁকে নির্বাচনের জন্য মোটা টাকাও দেওয়া হয়। সেই টাকা নিয়ে শ্রাবন্তী, পায়েলরা কেলি করেছেন বলেও কটাক্ষ করেছেন তথাগত রায়।

তাঁদের টিকিট পাওয়ানোর পিছনে কোনও উদ্দেশ্য রয়েছে কিনা তাও তাঁর প্রশ্নে জায়গা পেয়েছে। সরাসরি দিলীপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেননদের দিকে তির ছুঁড়ে তথাগতবাবু তাঁদের কাছেই তারকা প্রার্থীদের টিকিট দেওয়ার কারণ জানতে চেয়েছেন।

তথাগত রায় একটি বিশেষ দিনের প্রসঙ্গ তাঁর বক্তব্যে তুলে ধরেছেন। দোলের দিন তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্রের সঙ্গে গঙ্গাবক্ষে একসঙ্গে দোলের আনন্দে মেতে উঠতে দেখা যায় শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, তনুশ্রী চক্রবর্তী, পায়েল সরকারকে।

সেখানে একসঙ্গে ছবি তোলা, আনন্দ করার ছবি প্রকাশ্যে আসতেই সমালোচনার ঝড় ওঠে বিজেপি শিবিরে। মদন মিত্রের মত তৃণমূল প্রার্থীর সঙ্গে তখন বিজেপি প্রার্থী হিসাবে ঘোষিত শ্রাবন্তী, তনুশ্রী, পায়েল একসঙ্গে এক অনুষ্ঠানে থাকলেন কীভাবে সে প্রশ্ন ওঠে। এদিনও কিন্তু সেই প্রসঙ্গ উঠে এসেছে তথাগত রায়ের শ্লেষে।

তথাগত রায়ের এই বিস্ফোরক মন্তব্যে কার্যত অস্বস্তিতে বিজেপি। দিলীপ ঘোষ অবশ্য জানিয়েছেন তিনি মাঠ ছেড়ে পালানোর মানুষ নন। কেউ স্বপ্ন দেখতে পারেন, কিন্তু তিনি মাঠে নেমে লড়াই করেছিলেন।

কিন্তু তথাগত রায় এদিন যে সমস্ত অভিযোগের তির ছুঁড়েছেন তাতে কিন্তু বিজেপির অন্দরমহল দ্বিধাবিভক্ত। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button