Kolkata

দক্ষিণেশ্বরের মন্দিরে পুজো দিয়ে কী চাইলেন জানালেন অমিত শাহ

বৃহস্পতিবার বাঁকুড়া সফর সেরেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। শুক্রবার দিনভরের কর্মসূচি শুরু করলেন দক্ষিণেশ্বরে মা ভবতারিণীর পুজো দিয়ে। মায়ের কাছে কী চাইলেন তাও জানালেন।

কলকাতা : গত বুধবার রাতে কলকাতায় আসেন। বৃহস্পতিবার ছিল বাঁকুড়া সফর। তারপর রাতে ছিলেন নিউটাউনের একটি হোটেলে। শুক্রবার ঠাসা কর্মসূচি নিয়ে সকালেই বেরিয়ে পড়েন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সঙ্গে ছিলেন রাজ্য বিজেপির তাবড় নেতৃত্ব।

হোটেল থেকে বেরিয়ে প্রথমেই অমিত শাহ হাজির হন দক্ষিণেশ্বরের মন্দিরে। সেখানে তাঁকে স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্যে মহিলা মোর্চার মুখ অগ্নিমিত্রা পল। ছিলেন দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের অছি পরিষদের সম্পাদক কুশল চৌধুরী। এছাড়া বিজেপি নেতারা তো ছিলেনই। অমিত শাহ আসছেন বলে দক্ষিণেশ্বর চত্বর সকাল থেকেই কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছিল।

মন্দির চত্বরে হেঁটেই মূল মন্দিরে প্রবেশ করেন অমিত শাহ। কোভিড আচরণবিধি মেনে হাত স্যানিটাইজও করেন। তারপর হাজির হন মন্দিরের গর্ভগৃহে মা ভবতারিণীর সামনে। সেখানে পুজো দেন অমিত শাহ। কিছুটা সময় সেখানে কাটান। তারপর সেখান থেকে বেরিয়ে আসেন।

মন্দিরের কথাও শোনেন অন্যদের কাছে। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বাংলার দায়িত্বে থাকা বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় সহ মুকুল রায়, অনুপম হাজরা, রাহুল সিনহা, দিলীপ ঘোষের মত রাজ্যের তাবড় বিজেপি নেতারা।

পরে অমিত শাহ সাংবাদিকদের জানান, পশ্চিমবঙ্গ ভক্তি আন্দোলনের পীঠস্থান। রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব, স্বামী বিবেকানন্দ, শ্রী অরবিন্দ, শ্রী চৈতন্য মহাপ্রভুর নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন বাংলার সেই গৌরব আবার ফিরে আসুক সেটাই চেয়েছেন তিনি। মায়ের কাছে প্রার্থনা করেছেন গোটা দেশের যেন মঙ্গল হয়। বাংলার যেন মঙ্গল হয়।

এদিনও তৃণমূলকে নিশানা করতে ছাড়েননি অমিত শাহ। তিনি বলেন, এ রাজ্যে তোষণের রাজনীতি চলছে।

বাঁকুড়া সফরেই তৃণমূল সরকারকে এ রাজ্য থেকে উপড়ে ফেলার ডাক দিয়েছেন অমিত শাহ। এবার তিনি বাংলার গৌরব ফেরাতে কার্যত ঘুরিয়ে বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার আহ্বানই জানালেন রাজ্যবাসীর কাছে।

এদিন দক্ষিণেশ্বরে কিছুটা সময় কাটিয়ে সেখান থেকে অমিত শাহ রওনা দেন গলফ ক্লাব রোডের দিকে। অমিত শাহ আসছেন বলে এদিন দক্ষিণেশ্বরে অনেকটা সময় সাধারণ মানুষের পুজো দেওয়া বন্ধ ছিল।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.