World

করোনার ধাক্কায় বিয়ে করছেননা মানুষজন, ডিভোর্সও করছেননা

করোনার ধাক্কায় বিয়ে করতে চাইছেন না অনেকেই। এমনই চিত্র ধরা পড়েছে। যা নিয়ে চিন্তিত খোদ প্রশাসনও। বিষয়টি খতিয়ান দিয়ে তুলে ধরেছে তারা।

করোনা মানুষের স্বাভাবিক জীবন কেড়ে নিয়েছে গত দেড় বছরে। দীর্ঘ সময় গৃহবন্দি অবস্থায় কেটেছে। এখনও কোথাও তৃতীয় ঢেউ, কোথাও চতুর্থ ঢেউয়ের আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন মানুষজন।

এই পরিস্থিতি এতটাই ভয়ংকর চেহারা নিয়েছে যে মানুষ আতঙ্কে জীবন থেকে অনেক কিছুই ছেঁটে ফেলেছেন। যার মধ্যে রয়েছে বিয়েও।

এমনই ছবি উঠে এসেছে নিউজিল্যান্ডে। নিউজিল্যান্ডের সরকারি খতিয়ান বলছে সে দেশে নজরে পড়ার মত কমে গেছে বিয়ে ও সামাজিক অনুষ্ঠান।

নিউজিল্যান্ডে করোনা রুখতে যেভাবে লকডাউন চলেছে তাতে মানুষ ২ কিলোমিটারের বেশি বাড়ি থেকে দূরে যেতে পারেননি। লেভেল ৪ সতর্কতা জারি হয়েছিল করোনার জন্য। ফলে যে বিধিনিষেধ মানতে হয়েছে তাতে মানুষ বিয়েতে উৎসাহ হারিয়েছেন বলে মনে করছেন অনেকে।


খতিয়ান বলছে নিউজিল্যান্ডে ২০১৮ সালে বিয়ে হয়েছিল ২০ হাজার ৯৪৯টি। ২০১৯ সালে বিয়ে হয়েছিল ১৯ হাজার ৭১টি।

সেখানে ২০২০ সালে তা নেমে আসে ১৬ হাজার ৭৭৯-এ। বিয়ের মত সামাজিক অনুষ্ঠানে এতটা অনীহা দেখে চিন্তিত সে দেশের প্রশাসনও।

বিয়ের বয়স হয়েছে এমন মানুষের প্রতি ১ হাজার জনের হিসাবে দেখা গেছে শতাংশের হারে সবচেয়ে বেশি পতন হয়েছে ২০২০ সালে। নিউজিল্যান্ডে এই শতাংশের হার পাওয়া গিয়েছে ৮.৩ শতাংশ।

প্রসঙ্গত ঠিক এই হিসাবে নিউজিল্যান্ডে ১৯৭১ সালে বিয়ের হার ছিল ৪৫ শতাংশের বেশি। এদিকে নিউজিল্যান্ডে যেমন বিয়ে কমেছে তেমনই করোনায় ডিভোর্সের হারও পড়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button