SciTech

দৈহিক মিলনের জন্য আর মানুষের প্রয়োজন পড়বে না, কামাল দেখাবে এআই

নারী পুরুষের দৈহিক মিলনের জন্য একজন নারীর এক পুরুষের ও এক পুরুষের এক নারী সঙ্গীর প্রয়োজন পড়ে। আগামী দিনে কিন্তু তা হয়তো পড়বে না।

নারী পুরুষের দৈহিক মিলন এক আদি অনন্ত সত্য। এজন্য নারীর এক পুরুষের ও পুরুষের এক নারীর প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু গুগলের এক প্রাক্তন আধিকারিক দাবি করলেন, আগামী দিনে সঙ্গী হিসাবে মিলনের জন্য আর রক্তমাংসের মানুষের প্রয়োজন পড়বে না। এই প্রয়োজন মিটিয়ে দেবে রোবট।

কিন্তু রোবটের পক্ষে এই একান্ত গোপন এবং অনুভূতিপ্রবণ অভিব্যক্তি ব্যক্ত করা কি সম্ভব? ওই আধিকারিকের মতে সম্ভব। এটা বুঝতে রোবটকে সাহায্য করবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। ফলে নারী বা পুরুষ বুঝতেই পারবেননা তিনি কোনও বিপরীত লিঙ্গের সঙ্গীর সঙ্গে দৈহিক মিলনে আবদ্ধ, নাকি কোনও রোবটের সঙ্গে।

রোবট এক্ষেত্রে সম্পূর্ণ মানুষের সেই মুহুর্তের অভিব্যক্তিই প্রকাশ করবে। তার সারা শরীর সেভাবে কাজ করবে। ফলে আগামী দিনে আর দৈহিক প্রয়োজন মেটাতেও কোনও রক্তমাংসের মানুষের প্রয়োজন নেই।

এখানে প্রশ্ন হল কিন্তু যতই হোক রক্তমাংসের মানুষটির মাথায় তো এটা কাজ করতেই থাকবে যে তিনি এক রোবটের সঙ্গে মিলনে লিপ্ত! সেক্ষেত্রে তাঁর পক্ষে স্বাভাবিক জৈবিক অভিব্যক্তি কি সম্ভব?


এক্ষেত্রে একটি বিশেষ হেডসেট ব্যবহার হবে মিলনের সময়। সেই হেডসেটের হাত ধরে এআই ওই মানুষটিকে এটা বুঝিয়ে ছাড়বে যে তিনি রোবট নয়, রক্তমাংসের সঙ্গীর সঙ্গেই মিলনে লিপ্ত।

মিলনে লিপ্তদের একটি ভার্চুয়াল দুনিয়ায় নিয়ে গিয়ে ফেলবে এই এআই। গুগল আধিকারিকের কথা যদি সত্যি হয় তাহলে আগামী দিনে অন্য এক দৈহিক সম্পর্ক দেখতে চলেছে মানবসভ্যতা।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button