Kolkata

সাড়ে ৫ মাস পর পাতালে ছুটল রেল

সাড়ে ৫ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে রবিবার ছুটল পাতাল রেল। যা পরীক্ষার্থীদের শান্তিতে পৌঁছে দিল পরীক্ষা কেন্দ্রে।

কলকাতা : মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা নিট বিভিন্ন পরীক্ষাকেন্দ্রে রবিবার গ্রহণ করা হয়। জেলা থেকে কলকাতার বিভিন্ন কেন্দ্রেই এদিন সকালে পৌঁছে যান নিট পরীক্ষার্থীরা। কলকাতার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে পৌঁছনো পরীক্ষার্থীরা অবশ্য এদিন বাড়তি সুবিধা ভোগ করেছেন। পাতাল রেলে পৌঁছনোর সুবিধা। যা সময় বাঁচিয়েছে। যাত্রার ক্লান্তি বাঁচিয়েছে। দ্রুত নিশ্চিন্তে পৌঁছে দিয়েছে গন্তব্যে। নিট পরীক্ষার্থীরা এই সুবিধা পেয়ে বেজায় খুশিও। খুশি তাঁদের অভিভাবকরাও।

কলকাতায় মেট্রো চালু করা নিয়ে নবান্নে পরপর ২ দিন বৈঠক করেন মেট্রো রেল কর্তারা। রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকে রাজ্যের তরফে মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয় নিট পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে ১৩ সেপ্টেম্বর মেট্রো চালু করা হোক। কথা রাখে মেট্রো। স্থির হয় ১৩ সেপ্টেম্বর সাধারণ মানুষের জন্য না হলেও নিট পরীক্ষার্থীদের জন্য মেট্রো পরিষেবা চালু হবে। সেইমত এদিন সকাল ১০টায় চালু হয় মেট্রো পরিষেবা। যা সন্ধে ৭টা পর্যন্ত চালানো হবে বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

করোনা দেশে ছড়ানোর পর লকডাউন শুরুর সঙ্গে সঙ্গে মেট্রো পরিষেবাও বন্ধ হয় গিয়েছিল মার্চ মাসে। তারপর থেকে মেট্রোর চাকা আর ঘোরেনি। অবশেষে আনলক ৪ পর্বে সেপ্টেম্বরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তেই চালু হয়েছে মেট্রো পরিষেবা। কলকাতাতেও সাধারণের জন্য চালু হচ্ছে এই পরিষেবা। তার আগে রবিবার কেবলমাত্র নিট পরীক্ষার্থীদের নিয়ে সফরের মধ্যে দিয়ে সাড়ে ৫ মাস পর পাতাল রেল ফের ছুটল পাতালপথে।

এদিন অবশ্য নিট পরীক্ষার্থীদের মেট্রোয় চড়তে তাঁদের অ্যাডমিট কার্ড দেখাতে হয়। তবেই মেট্রোর কাউন্টার থেকে কাগজি টিকিট হাতে পান তাঁরা। প্রতি পরীক্ষার্থী পিছু ১ জন করে অভিভাবককে পাতাল সফরের অনুমতি দেয় মেট্রো কর্তৃপক্ষ। এর বাইরে কাউকে মেট্রোয় সফর করতে এদিন দেওয়া হয়নি। মেট্রোয় স্যানিটাইজার, দূরত্ববিধি মেনে চলা, বসার সময় দূরত্ব মেনে বসা, সবই মেনে চলতে হয়েছে এদিনের যাত্রীদের।

তবে মেট্রোতে যাঁরা পরীক্ষা কেন্দ্রের কাছাকাছি পৌঁছতে পেরেছেন সেসব পরীক্ষার্থী থেকে অভিভাবক সকলেই খুশি। পরীক্ষা কেন্দ্রেও এবার করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে বিশেষ ব্যবস্থা ছিল। দূরত্ব মেনে পরীক্ষা, মুখে মাস্ক আবশ্যিক, হলে ঢোকার সময় স্যানিটাইজার দিয়ে হাত সাফ ও থার্মাল স্ক্রিনিং-এর মধ্যে দিয়ে যাওয়া, সবই করতে হয়েছে পরীক্ষার্থীদের।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button