SciTech

ভূমিকম্প হলেও ক্ষয়ক্ষতি তেমন হবেনা, বাঁচাবে গঙ্গা

দেশে ভূমিকম্প নতুন কিছু নয়। বিশেষত হিমালয় সংলগ্ন এলাকায় ভূমিকম্পের খবর প্রায়ই আসে। যদিও তা হলেও একটি অঞ্চল বেঁচে যাবে ক্ষয়ক্ষতি থেকে।

ক্রমশ বদলে যাচ্ছে পৃথিবী। ভারতীয় উপমহাদেশের মাটির তলদেশে যে প্লেট রয়েছে তা ক্রমশ উত্তর দিকে সরে ইউরেশিয়ার প্লেটের দিকে যেতে শুরু করেছে। যার জের গত ৩০ বছরে হিমালয় ও সংলগ্ন এলাকায় বারবার ভূমিকম্প ডেকে এনেছে। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রচুর।

মাত্র কদিনের ব্যবধানে নেপালে পরপর ২ বার কেঁপেছে মাটি। ভারতের কয়েকটি জায়গাতেও ভূমিকম্প হয়েছে। কিন্তু হিমালয়ের কাছে হয়েও ভারতের একটি অংশের মানুষের ভূমিকম্প থেকে চিন্তার তেমন কিছু দেখছেন না এক গবেষক। তার কারণও জানিয়েছেন তিনি।

লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূবিদ্যার অধ্যাপক ধ্রুবসেন সিং বিষয়টি নিয়ে বিস্তর গবেষণার পর দাবি করেছেন, লখনউ সহ তার আশপাশের এলাকা, যা মূলত গাঙ্গেয় সমভূমির অংশ সেখানে তো বটেই, এমনকি গাঙ্গেয় সমভূমি এলাকার প্রায় পুরো অংশেই ভূমিকম্পের খুব জোড়াল প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা নেই।

ধ্রুবসেনের মতে, গাঙ্গেয় সমভূমি এলাকার মাটি প্রধানত ঝুনো বালি, কাদা এবং পলিমাটি দিয়ে তৈরি হয়। যা খুব শক্ত হয়না। মাটির এই আলগা ভাব গাঙ্গেয় সমভূমি অঞ্চলে ভূমিকম্প হলেও তার কম্পনকে জোড়াল হতে দেবেনা।

সেইসঙ্গে ধ্রুবসেন এও জানিয়েছেন, মৃদু কম্পন মাঝেমধ্যে হলে তাতে ক্ষয়ক্ষতিও হয়না, আবার সুদূরপ্রসারী প্রভাবের দিক থেকেও মঙ্গলের। কারণ টেকটনিক প্লেট নড়াচড়া করলেই কম্পন হবে।

যদি হাল্কা কম্পন হয় তাহলে টেকটনিক প্লেটের নড়াচড়ার প্রভাবটা অল্পের ওপর দিয়ে চলেও যাবে। ফলে বড় কম্পনের সম্ভাবনা থাকবে না।

গাঙ্গেয় সমভূমি অঞ্চল কিন্তু হিমালয়ের থেকে আলাদা। হিমালয়কে হিমালয়ান ফ্রন্টাল ফল্ট গাঙ্গেয় সমভূমি থেকে আলাদা করেছে। তাই হিমালয়ে কিন্তু বড়সড় কম্পনের সম্ভাবনা রয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button