Entertainment

সলমন খানকে একহাত নিলেন দীপিকা পাড়ুকোন

সলমন খানকে বড় একটা চটাতে পছন্দ করেন না বলিউডের অন্য তারকারা। সেখানে শুধু নামটা উহ্য রেখে সলমন খানের মন্তব্যের খোলাখুলি সমালোচনা করলেন দীপিকা পাড়ুকোন। ২০১৫ সালে দীপিকা চরম মানসিক অবসাদের শিকার হন। তাঁর তখন কিছুই ভাল লাগত না। ক্লান্তি পেয়ে বসেছিল। সেই সময় তিনি অবসাদ লুকিয়ে না রেখে তা নিয়ে খোলাখুলি সকলকে বলতেন। তাতে তাঁর মনে হয়েছে তাঁর ভার অনেকটা কমত। সেই সময়টা কাটিয়ে দীপিকা অবসাদ থেকে বার হয়ে আসেন। কিন্তু সেই সময় তিনি অবসাদ নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করতেন বলে সলমন খান কদিন আগে তাঁকে অবসাদ বিলাসী বলে কটাক্ষ করেন। যদিও দীপিকার নাম করেননি সলমন।

সলমন খান বলেন, তাঁর অবসাদ নিয়ে বিলাসিতা করার সময় নেই। এটা যে তিনি দীপিকাকেই বলেন তা বুঝতে কারও অসুবিধা হয়নি। সলমনের খোঁচাটা বোধহয় মনে রেখেছিলেন দীপিকা। কদিন আগে বিশ্বখ্যাত ‘ভোগ’ পত্রিকায় একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে সলমনকে এমন মন্তব্যের জন্য একহাত নেন তিনি। দীপিকা বলেন, কিছু মানুষ আছেন যাঁরা দুঃখ আর অবসাদের মধ্যে ফারাক করতে পারেননা। এক পুরুষ অভিনেতা সম্প্রতি বলেন যে তাঁর নাকি অবসাদের বিলাসিতা করার সময় নেই। যেন অবসাদ কেউ সাধ করে করে! দীপিকা আরও বলেন, অবসাদের বিরুদ্ধে তাঁকে প্রবল লড়াই চালাতে হয়েছে। প্রতিটি সেকেন্ডে লড়াই করতে হয়েছে।

দীপিকা পাড়ুকোনের অবসাদ পরিস্থিতি নিয়ে কমবেশি সকলেই জানেন। হয়তো তিনিই এমন একজন অভিনেত্রী যিনি এত খোলাখুলি নিজের অবসাদ নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। কারণ অভিনেতা অভিনেত্রীরা জনসমক্ষে তাঁদের দুঃখ, অবসাদ লুকিয়ে রেখে হাসতে পছন্দ করেন। নিজেকে সাজিয়ে রাখেন। যাতে তাঁর তারকা ভাবমূর্তিতে কোনও ছাপ না পড়ে। দীপিকা পাড়ুকোন কিন্তু একদম অন্য পথে হাঁটেন। সেখানে আগবাড়িয়ে সলমন খানের তাঁকে খোঁচা মারার কারণ খুব পরিস্কার ছিলনা অনেকের কাছে। তবে দীপিকার উত্তরের পর কিন্তু সলমন বনাম দীপিকা লেগে গেল বলেই মনে করছে টিনসেল টাউন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button