SciTech

হাজার হাজার স্কুলের ওয়েবসাইটে হ্যাকার হানা

প্রায় ৮ হাজার স্কুলের ওয়েবসাইটে হানা দিল হ্যাকাররা। এবার স্কুলের ওয়েবসাইটে নজর পড়েছে তাদের। স্কুলগুলি তাদের ওয়েবসাইটে কোনও কাজ করতে পারছেনা।

এক আধটা নয়। এবার হ্যাকার হানার ঘটনা ঘটল প্রায় ৮ হাজার স্কুলের ওয়েবসাইটে। নিমেষে হ্যাকাররা স্তব্ধ করে দিয়েছে ওইসব ওয়েবসাইট। স্কুলগুলি অনেক চেষ্টা করেও তাদেরই ওয়েবসাইটে ঢুকতে পারছেনা, খুলতে পারছেনা।

অথচ বর্তমানে বিশ্বের যা পরিস্থিতি তাতে স্কুলের ওয়েবসাইটের গুরুত্ব অনেক গুণ বেড়ে গেছে। এই অবস্থায় চলতি সপ্তাহের শুরু থেকেই একের পর এক স্কুলের ওয়েবসাইটে ভাইরাস লাগার ঘটনা নজরে পড়ে।

এই ৮ হাজার স্কুলের মধ্যে ৫ হাজার স্কুলই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের। এছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ৩ হাজার স্কুল রয়েছে। এসব স্কুলের ওয়েবসাইট বসে যাওয়ার কারণ অবশ্য একটি বিন্দুতে লুকিয়ে রয়েছে।

দেখা গেছে এইসব স্কুলের ওয়েবসাইট তৈরি করা, হোস্টিং এবং তার যাবতীয় পরিচালন ও সমস্যা সমাধানের কাজ করে একটি এডুকেশন টেকনোলজি সংস্থা ফাইনালসাইট।

এই সংস্থার পুরো সিস্টেমে হানা দিয়েছে হ্যাকাররা। আর তার জেরেই এই সংস্থার তত্ত্বাবধানে থাকা স্কুলের ওয়েবসাইটগুলি স্তব্ধ হয়ে রয়েছে।

ফাইনালসাইট সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে তারা রাতদিন এক করে প্রতিটি স্কুলের ওয়েবসাইটকে সক্রিয় করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। বাড়ানো হচ্ছে সুরক্ষা স্তরও।

সেইসঙ্গে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের সাহায্য নিয়ে কিভাবে এমন কাণ্ড ঘটল এবং কারা কোথা থেকে এমন কাণ্ড ঘটাল তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে ফাইনালসাইট।

এদিকে স্কুল নানা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রতিনিয়ত অভিভাবকদের জানায়। সেই প্রক্রিয়া স্তব্ধ হওয়ায় স্কুল ও অভিভাবকদের মধ্যে একটা ফাঁক তৈরি হয়েছে। স্কুলের সিদ্ধান্ত অভিভাবকরা জানতেও পারছেন না। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button