Foodie

জিভে জল আনা বিরিয়ানি ভারতের খাবারই নয়, এসেছিল কোন দেশ থেকে

ভারতে বিরিয়ানি নামে জিভে জল আনা খাদ্যটি উত্তর থেকে দক্ষিণ সর্বত্র পাওয়া যায়। এক এক জায়গায় এক এক স্বাদ। কিন্তু বিরিয়ানি মোটেও ভারতীয় খাবার নয়।

অনেকের এমন ধারনা আছে যে বিরিয়ানি নেহাতই ভারতীয় একটি খাবার। যা নবাবি আমলে জন্ম নিয়েছিল। প্রথমে নবাবদের জন্য রান্না হলেও পরবর্তী সময়ে তা সাধারণের পছন্দের খাবার হয়ে যেতে সময় নেয়নি। সেই বিরিয়ানির আবার ভারতজুড়ে যেমন জনপ্রিয়তা তেমনই বিভিন্নতা।

কলকাতার বিরিয়ানির স্বাদ আলাদা, আবার নবাবদের শহর লখনউয়ের বিরিয়ানি একদম অন্য স্বাদের। আবার হায়দরাবাদের বিরিয়ানির স্বাদ আলাদা।

কলকাতার বিরিয়ানির বিশেষত্ব হল তার আলু। কলকাতাই প্রথম বিরিয়ানিতে আলু দেওয়ার রীতি প্রচলন করে। কিন্তু এই যে বিরিয়ানির এত কদর ভারত জুড়ে তা কি আদৌ ভারতীয় খাবার? একেবারেই কিন্তু তা নয়। বিরিয়ানি ভারতে এসেছিল অন্য দেশ থেকে।

বিরিয়ানি আসলে পারস্যের খাবার। তা সেখানে পরিচিত ছিল বিরিয়ান নামে। বিরিয়ানি নামে নয়। পারস্যে বিরিয়ান মানে ছিল রান্নার আগে ভেজে নেওয়া কোনও খাবার। এই বিরিয়ান একসময় পারস্য থেকে ভারতে এসে পৌঁছয়।

তারমানে বিরিয়ানির জন্ম মধ্যপ্রাচ্যে। তারপর সেখান থেকে একসময় তার ভারতে আগমন। প্রথমে বাদশাহি খানা থাকলেও ক্রমে তা সাধারণের মন ভাল করা খাবারে পরিণত হয়।

তাই এটা মনে করার কোনও কারণ নেই যে ভারতজুড়ে বিরিয়ানির এত কদর মানে তা ভারতেই তৈরি হয়েছিল। একসময় উন্নত মধ্যপ্রাচ্য থেকে শুধু বিরিয়ানি বলেই নয়, অনেক কিছুই সেসময় ভারতে প্রবেশ করেছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button