Sports

বিরাট বোমার পর অবশেষে মুখ খুললেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

সাদা বলে তাঁর অধিনায়কত্ব ছাড়ার প্রসঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বক্তব্যকে মিথ্যা বলে তোপ দেগেছেন বিরাট কোহলি। যা নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন বিসিসিআই সভাপতি।

সাদা বলের অধিনায়কত্ব ছাড়া নিয়ে তাঁর সাথে বিসিসিআই-এর তরফ থেকে কোনও যোগাযোগ করা হয়নি। তাঁকে কেবল টেস্ট দল ঘোষণার দেড় ঘণ্টা আগে জানিয়ে দেওয়া হয় তিনি সাদা বলের ক্রিকেটে আর অধিনায়ক থাকছেন না।

তাঁকে টি-২০ অধিনায়কত্ব ছাড়া থেকে বিরত থাকতেও কেউ বলেননি। দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলতে উড়ে যাওয়ার আগে একটি ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে বিরাট কোহলি একথা জানান। যাকে কার্যত বিরাট বোমা বলেই ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।

বিরাটের বক্তব্য সরাসরি সৌরভের বিরুদ্ধে গেল। কারণ বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বিরাটের সাদা বলের অধিনায়কত্ব ছাড়া নিয়ে যা বলেছিলেন তার সঙ্গে বিরাটের দাবি মিলছে না।

এই ঘটনা সামনে আসার পর সুনীল গাভাস্কার দাবি তোলেন সৌরভকে ডেকে এ প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা উচিত। সকলেই অপেক্ষা করছিলেন সৌরভ এ প্রসঙ্গে কি বলেন।

কিন্তু সৌরভ বিরাটের বক্তব্যের পর মুখে কুলুপ আঁটেন। যদিও সেই অবস্থান থেকে সরে বৃহস্পতিবার তিনি মুখ খুললেন।

সৌরভের বাড়ির সামনে অপেক্ষায় থাকা সাংবাদিকরা তাঁকে বিষয়টি নিয়ে চেপে ধরলে সৌরভ জানান, তিনি ব্যক্তিগতভাবে এ বিষয়ে কিছু বলবেন না। এটি স্পর্শকাতর বিষয়। এ নিয়ে বিসিসিআই আলোচনা করছে।

বিসিসিআই বিষয়টি নিয়ে যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেবে। কিন্তু তিনিই তো বিসিসিআই সভাপতি! এ প্রশ্নের অবশ্য কোনও উত্তর দেননি সৌরভ।

প্রসঙ্গত গত কয়েকদিনে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বারবার বলে এসেছেন যে একদিনের ম্যাচে দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে তা রোহিত শর্মার হাতে তুলে দেওয়া নিয়ে তিনি ব্যক্তিগতভাবে বিরাটের সঙ্গে কথা বলেছিলেন।

এমনকি টি-২০ দলের অধিনায়কত্ব বিরাটকে না ছাড়াতেও নাকি বলেছিলেন সৌরভ। কিন্তু তাতে রাজি হননি বিরাট। বিরাট রাজি না হওয়ায় তাঁরাও ভেবে দেখেন যে সাদা বলের ২টি ফরম্যাটে ২ জন আলাদা অধিনায়ক না থাকাই ভাল।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.