Entertainment

সলমন খানের বিরুদ্ধে পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে বললেন নেটিজেনরা

রীতিমত তোপের মুখে পড়লেন সলমন খান। মুম্বই পুলিশের কাছে তাঁদের তরফে আর্জিও জানানো হল বলিউড সুপারস্টারের বিরুদ্ধে যেন অবিলম্বে ব্যবস্থা নেয় মুম্বই পুলিশ। কিন্তু কী এমন করলেন সলমন যে এমন পরিস্থিতির মুখে পড়তে হল তাঁকে? হালে একটি সাইকেলে চড়ে গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট থেকে বেরিয়ে সলমন খান বড় রাস্তায় ওঠেন। তারপর রাস্তায় সাইকেল চলে সর্পিল গতিতে। দ্রুত লেন বদলাতে থাকেন তিনি। মাথায় ছিল না কোনও হেলমেট। সেই ভিডিও তিনি ট্যুইটারে প্রকাশ করেন। সময়ের গুরুত্ব বোঝান তাঁর ফলোয়ারদের। কিন্তু তাতে হিতে বিপরীত হয়।

নেটিজেনদের একটা বড় অংশ সলমন খানের এই সাইকেল ভ্রমণ নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। ৫৩ বছর বয়সী সুপারস্টার মাথায় হেলমেট ছাড়াই কী করে রাস্তায় সাইকেল নিয়ে বার হন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। রাস্তায় আঁকাবাঁকা ভাবে সাইকেল চালানো, লেন ভেঙে যেমন খুশি সাইকেল ঢুকিয়ে দেওয়া, এসব নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন তাঁরা। এমনকি বিষয়টিতে মুম্বই পুলিশের দৃষ্টি আকর্ষণ করানোরও চেষ্টা দেখা গেছে তাঁদের বক্তব্য। মুম্বই পুলিশ বিষয়টি দেখে যেন ব্যবস্থা নেয় তেমন পরামর্শ দিয়েছেন অনেকে। একজন লিখেছেন তিনি সলমন খানের অনুরাগী। কিন্তু সলমন সুরক্ষা নিয়ে কোনও ভাল দৃষ্টান্ত এই ভিডিও মারফত দেননি। কোথায় তাঁর সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে শরীরকে প্রটেক্ট করার সরঞ্জাম। কেন যানবাহনের মধ্যে দিয়ে এমন কেটে বার করার ঝুঁকিপূর্ণ সাইকেল চালনাকে ছাড়ানোর চেষ্টা? একজন লিখেছেন রাস্তার মাঝখান দিয়ে সাইকেল চালানো মানে সকলকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলা। একজন আবার মজা করে লিখেছেন, ভাই এমন করে কাটিয়ে যাবে তো আরও একটা কেসে ফেঁসে যাবে।


মুহুর্তে পান আপডেট, Join আমাদের WhatsApp Channel

সলমন ভিডিও প্রকাশ করে হয়ত ভাল কোনও বার্তা দিতে চেয়েছেন। কিন্তু ভিডিওতে তিনি যেভাবে সাইকেল চালালেন তাতে নেটিজেনদের কোপে পরা অস্বাভাবিক কিছু ছিলনা। কারণ তাঁর মত একজন সেলেব্রিটির কাছ থেকে ট্রাফিক আইন মেনে চলার বার্তাই সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছনো উচিত ছিল। যা কিন্তু এই ভিডিওতে দেখা যায়নি বলেই মনে করছেন নেটিজেনরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *