Sports

চলে গেল কলারবালী, ভেঙে পড়লেন শচীন তেন্ডুলকর

কলারবালীর মৃত্যুর খবর কানে আসতে ভেঙে পড়লেন শচীন তেন্ডুলকর। ট্যুইট করে তিনি শোক ব্যক্ত করেছেন। কলারবালীর আত্মার শান্তিও কামনা করেছেন।

মৃত্যুটা হয়েছে গত ১৫ জানুয়ারি। সে খবর পৌঁছয় ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তী ভারতরত্ন শচীন তেন্ডুলকরের কানে। এই মৃত্যুটা যে কতটা বেদনার তা ব্যক্ত করতে গিয়ে শচীন ট্যুইট করেন।

ট্যুইটে শচীন লেখেন যে এমন রাজকীয় এক বাঘিনীর চিরদিনের মত স্তব্ধ হয়ে যাওয়া কতটা হৃদয়বিদারক তা পশুপ্রেমীরাই অনুভব করেন। কলারবালীর আত্মার শান্তি কামনা করেন তিনি।

Sachin Tendulkar
ফাইল : শচীন তেন্ডুলকর, ছবি – নিজস্ব চিত্র

কলারবালী ছিল সেই বাঘিনী যার গলায় প্রথম রেডিও কলার পরানো হয়েছিল। মধ্যপ্রদেশের পেঞ্চ টাইগার রিজার্ভে ছিল তার স্বচ্ছন্দ বিচরণ।

জঙ্গলে রাজকীয় ভঙ্গিতে ঘুরে বেড়াত সে। ১৭ বছর বেঁচেছিল এই বাঘিনী। যেখানে বাঘদের গড় আয়ু ১২ বছর। সে তুলনায় বেশিদিনই বেঁচেছিল এই বাঘিনী।

তবে গত কয়েকদিন ধরেই সে রোগে জর্জরিত ছিল। তাকে অন্ত্রের রোগ গ্রাস করেছিল। অন্ত্রে প্রচুর মাটি ও চুল জমে গিয়েছিল। যা অন্ত্রের কাজ বন্ধ করে দেয়। তার থেকে মাল্টি অর্গান ফেলিওর হয়। আর তা থেকেই তার মৃত্যু হয়।

প্রধানত এটা বার্ধক্যজনিত সমস্যা থেকেই হয়েছে বলে তার অটোপ্সি রিপোর্টে পাওয়া গিয়েছে। তবে জীবনে সে সুপারমম আখ্যাও পেয়েছে।

১৭ বছরের জীবনে সে ২৯টি ব্যাঘ্র শাবকের জন্ম দিয়েছে। যার মধ্যে এখনও ২৫টি বেঁচে রয়েছে। কলারবালীর শেষকৃত্য যথেষ্ট সম্মানের সঙ্গে করা হয়। পেঞ্চ টাইগার রিজার্ভের অনেক আধিকারিক উপস্থিত ছিলেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.