Sports

হাসপাতালে ভর্তি শচীন তেন্ডুলকর, চিন্তায় ক্রিকেট বিশ্ব

হাসপাতালে ভর্তি করা হল কিংবদন্তী ক্রিকেটার শচীন তেন্ডুলকরকে। করোনা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হল তাঁকে। কয়েকদিন আগেই তাঁর করোনা ধরা পড়ে।

নয়াদিল্লি : বলিউড সেলেব্রিটি থেকে ক্রিকেটার সহ অন্যান্য বিভিন্ন ক্ষেত্রের বহু স্বনামধন্য মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সেই তালিকায় কদিন আগে যুক্ত হয় ভারতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার শচীন তেন্ডুলকরের নাম। শচীন নিজেই যেভাবে ট্যুইট করে তাঁর করোনা সংক্রমিত হওয়ার কথা সকলকে জানিয়েছিলেন, তেমনই তিনি শুক্রবার তাঁর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কথাও জানান।

শচীন জানিয়েছেন অনেক বিধিনিষেধ রয়েছে। যা মেনে চলতে হচ্ছে। সেসব করোনা সংক্রান্ত নিয়মকানুন যাতে ঠিকঠাক পালন করা সম্ভব হয় সেজন্যই হয়তো তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শচীন করোনা সংক্রমিত হওয়ার কথা জানানোর পাশাপাশি জানিয়েছিলেন তাঁর মৃদু উপসর্গ রয়েছে। এদিন হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কথা জানিয়েও তিনি সকলকে আশ্বস্ত করেছেন যে তিনি কয়েকদিনের মধ্যেই ফের বাড়ি ফিরে আসবেন।

হাসপাতালে ভর্তির খবর জানানোর পাশাপাশি এদিন শচীন ১০ বছর আগে জেতা বিশ্বকাপের কথা স্মরণ করিয়ে সেই দলের সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।


গত ২৭ মার্চ শচীনের করোনা ধরা পড়ে। তারপর থেকে তিনি বাড়িতেই নিভৃতে থাকছিলেন। চিকিৎসকের পরামর্শমত সব করোনা বিধি মেনে চলছিলেন বলেও জানিয়েছিলেন শচীন। সেইসঙ্গে তিনি এও জানিয়েছিলেন যে তাঁর পরিবারের সকলেরই করোনা পরীক্ষা হয়েছিল। তবে তিনিই কেবল করোনা পজিটিভ বেরিয়েছেন। বাকিদের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ। তাই বাড়িতে তিনি আলাদাই রয়েছেন।

প্রসঙ্গত কিছুদিন আগে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ টি-২০ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন শচীন। ইন্ডিয়া লেজেন্ডস দলের অধিনায়কত্ব করেন তিনি। সেই দলে ছিলেন ইরফান পাঠান, ইউসুফ পাঠান এবং সুব্রহ্মণ্যম বদ্রীনাথ। ওই প্রতিযোগিতার পর শচীন ছাড়াও ইরফান, ইউসুফ এবং বদ্রীনাথ করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন।

রায়পুরে হওয়া ওই প্রতিযোগিতা থেকেই কী তবে সংক্রমণ? এমন প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই। এদিকে ভারতে এদিন করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা একদিনে ৮১ হাজার পার করেছে। হুহু করে বেড়েই চলেছে সংক্রমণ। করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে আপাতত কাবু দেশ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button