World

হাসিমুখে কাজ না করলে কাটা যাবে ৬ মাসের মাইনে, যেতে পারে চাকরিও

হয় হাসিমুখে কাজ কর, নয়তো মোটা অঙ্কের জরিমানার জন্য তৈরি থাক। কাটা যেতে পারে ৬ মাসের মাইনেও। এমনই এক নির্দেশ জারি করলেন এক মেয়র।

কিছুদিন হল তিনি শহরের মেয়র পদে বসেছেন। আর বসার কিছুদিনের মধ্যেই তিনি এমন এক বার্তা পৌঁছে দিলেন সরকারি কর্মীদের জন্য যে গোটা দেশজুড়ে হইচই পড়ে গেছে।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

অনেকেই তাঁর জারি করা ফতোয়ায় বেজায় খুশি। খুব দ্রুত শহরবাসীর নজরে যেমন পড়েছেন, তেমন পছন্দের চরিত্র হয়ে উঠেছেন অ্যারিস্টটল।

মেয়র হিসাবে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, পুরসভায় যাঁরা কাজ করেন তাঁদের এবার থেকে মুখে হাসি নিয়ে কাজ করতে হবে। যাঁরা শহরের টাউন হলে কোনও প্রয়োজনে আসবেন তাঁদের সঙ্গে সুন্দর ব্যবহার করতে হবে, তাঁদের সহযোগিতা করতে হবে।

আর যদি দেখা যায় কোনও কর্মী এমনটা করছেননা, তাহলে তাঁকে কঠোর দণ্ডের মুখে পড়তে হবে। তাঁর ৬ মাসের মাইনে কাটা যেতে পারে। অথবা চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হতে পারে।

ফিলিপিন্সের মুলানে শহরের মেয়র হয়েছেন অ্যারিস্টটল অ্যাগুইরে। তিনি পদে বসেই এই ফতোয়া জারি করেছেন। এই শহরে অনেক সময়ই মৎস্যজীবী বা নারকেল কৃষকরা হাজির হন নানা প্রয়োজনে। তাঁদের পুরসভায় যেতে হয়।

সেখানে তাঁদের অধিকাংশ সময় কর্মীদের বিরূপ ব্যবহারের মুখে পড়তে হয়। তাঁরা মাইলের পর মাইল হেঁটে আসেন কাজ পেতে। কিন্তু তাঁদের সঙ্গে এমন ব্যবহার তাঁদের ব্যথিত করে।

এই সংস্কৃতি বদলাতে হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন নতুন মেয়র। সাফ জানিয়েছেন বন্ধুত্বপূর্ণ মানসিকতা ও অভিব্যক্তি নিয়ে কাজ করতে হবে।

অ্যারিস্টটলের এই স্মাইল পলিসি বা হাসি প্রকল্প কীভাবে রূপায়িত হবে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলার চেষ্টা করেন কর্মচারিরা। কর্মচারিদের বক্তব্য তাঁদের তো মাস্ক পরে কাজ করতে হচ্ছে। সেখানে তাঁরা হাসছেন কিনা কীভাবে বোঝা যাবে?

মেয়র অ্যারিস্টটল তার উত্তরে জানিয়েছেন, উল্টো দিকে থাকা মানুষটা মুখে মাস্ক থাকলেও বুঝতে পারেন তাঁর সঙ্গে কেমন ব্যবহার করা হচ্ছে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button