World

জলের তলায় লুকিয়ে ছুঁয়েছিল মৃত্যুবাণ, ৮১ বছর পর ফের তার দেখা মিলল

সাবমেরিন থেকে ছোঁড়া হয়েছিল টর্পেডো। অব্যর্থ নিশানায় তা স্পর্শ করেছিল টার্গেট। সেই টর্পেডোর আঘাতে তলিয়ে গিয়েছিল সমুদ্রে। ৮১ বছর পর তার দেখা মিলল।

তখন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলছে। সময়টা ১৯৪২ সাল। ভারতজুড়ে ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ঢেউ। সেইসময় জাপানের একটি বাণিজ্যতরী ভেসে যাচ্ছিল যুদ্ধবন্দিদের নিয়ে। জাহাজটিতে প্রায় ১ হাজারের কাছে অস্ট্রেলিয়ান সেনা ছিলেন।

জাহাজটি দক্ষিণ চিন সাগরের ওপর দিয়ে ভেসে যাওয়ার সময় জানতেও পারেনি জলের তলায় ওত পেতে আছে একটি মার্কিন সাবমেরিন বা ডুবোজাহাজ।

সেই জলের তলায় লুকিয়ে থাকা ডুবোজাহাজ কিন্তু নজর করেছিল এই জাপানি এসএস মন্টেভিডিও মারু নামের জাহাজটিকে। তারপরই তা লক্ষ্য করে ডুবোজাহাজ থেকে ছোঁড়া হয় টর্পেডো।

জলের তলা দিয়ে গিয়ে সেই টর্পেডো চূর্ণ করে দেয় অস্ট্রেলিয়ান সেনা ভর্তি জাহাজটিকে। সমুদ্রে তলিয়ে যায় বিশাল বাণিজ্যতরীটি।

তারপর কেটে গেছে ৮১টা বছর। এতদিনেও কিন্তু সেই জাহাজের ধ্বংসাবশেষের দেখা মেলেনি জলের তলায়। কোথায় হারিয়ে গেল সেই ভাঙা জাহাজ? তারই খোঁজ চলছিল সমুদ্রের অনেক গভীরে।

অবশেষে সেখানেই ফিলিপিন্সের কাছে জলের তলায় তার দেখা মিলেছে। গবেষকেরা তার দেখা পেয়েছেন। পাপুয়া নিউ গিনি থেকে চিনের দিকে যাত্রা করা ওই জাহাজটির চিন পৌঁছনো হয়নি। তবে ৮১ বছর পার করে অবশেষে তার দেখা জলের তলায় পাওয়াটাও বড় পাওনা হিসাবেই দেখছেন গবেষকেরা।

সমুদ্রের তলায় ১৩ হাজার ফুটেরও বেশি নিচে নিশ্চিন্তে শুয়ে আছে জাহাজটির ধ্বংসাবশেষ। সেই ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষা করে আরও তথ্য পাওয়ার চেষ্টা করছেন গবেষকেরা।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button