National

মন্দিরে এলে মিলছে মাস্ক প্রসাদ, খুশি ভক্তরা

প্রসাদ দিয়ে পুজো নয়। এবার ঈশ্বরের পায়ে মাস্ক দিয়ে তারপর তা বিলি করছেন এক সমাজকর্মী।


বারাণসী : মন্দিরে পুজো দিতে গেলে অনেকেই প্রসাদ, শাড়ি, দোপাট্টা, চেলি এবং এমন কত কিছুই পুজো হিসাবে দেবতার পায়ে নিবেদন করেন। তারপর তা মাথায় ঠেকিয়ে বাড়িতে নিয়ে যান আশির্বাদী হিসাবে। যত্নে রাখেন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি সেই তালিকায় যোগ করে দিয়েছে মাস্কও। বারাণসীর মন্দিরে পুজো দিতে প্রতিদিন মাস্ক নিবেদন করছেন এক সমাজকর্মী। নাম চন্দ্রেশ নারায়ণ পাণ্ডে। যাঁর বিশ্বাস মাস্ক পুজো দিলে আস্তে আস্তে বিদায় নেবে করোনা।


চন্দ্রেশ প্রতিদিন বারাণসীর লক্ষ মঙ্গলেশ্বর মহাদেব মিশির পোখারা মন্দিরে দেবতার চরণে ১০০টি করে মাস্ক নিবেদন করেন। তারপর পুজো হয়ে গেলে সেই মাস্কগুলি বিলি করেন দরিদ্রদের মধ্যে। যাতে তাঁদের মাস্ক পেতে কোনও সমস্যা না হয়। চন্দ্রেশ জানিয়েছেন, এভাবেই তিনি চালিয়ে যাবেন। যতদিন না করোনা বিদায় নিচ্ছে তিনি দেবতার পায়ে নিবেদন করে মাস্ক বিলি বজায় রাখবেন।


মন্দিরে যাঁরা পুজো দিতে আসছেন এবং যাঁদের মুখে মাস্ক থাকছে না তাঁদেরও তিনি একটি করে দেবতাকে নিবেদন করা মাস্ক তুলে দিচ্ছেন। মন্দিরে আসা ভক্তরাও খুশি। অনেকেই হাতে পাচ্ছেন মাস্ক প্রসাদ। এমন এক অভিনব উদ্যোগ সকলের নজর কেড়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা




Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *