World

চার্চে জঙ্গি হানা, মৃত ৫ মহিলা

রবিবার ছুটির দিন। কর্মব্যস্ত জীবনের একঘেয়েমি কাটিয়ে সকলের একসাথে একত্রিত হওয়ার দিন। চার্চে গিয়ে সম্মিলিতভাবে ঈশ্বরের উপাসনার করার দিন। আর পাঁচটা রবিবারের মতই তাই গত রবিবার রাশিয়ার কিজলায়ার প্রদেশের দাগেস্তান শহরের চার্চে লোকসমাগম ছিল যথেষ্ট। ওইদিন আবার চলছিল দাগেস্তানের বাসিন্দাদের এক বিশেষ আঞ্চলিক উৎসব। স্বভাবতই প্রভু যিশুর উপাসনার পাশাপাশি ভালোই জমে উঠেছিল উৎসবের মেজাজ। সেই আনন্দ উৎসবে আচমকা ছন্দপতন হয় গুলির জোরাল আওয়াজে।

হাতে ছুরি ও বন্দুক নিয়ে চার্চে উপস্থিত জনতার ওপর হামলা চালায় ১ জঙ্গি। হামলায় প্রাণে বেঁচে যাওয়া চার্চের পাদ্রির দাবি, এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে চালাতে চার্চে ঢোকার চেষ্টা করছিল ওই জঙ্গি। প্রাণ বাঁচাতে চার্চের বাইরে উপস্থিত লোকজন এলাকা ছেড়ে পালাতে শুরু করেন। তাঁদের মধ্যে অনেকে জঙ্গির গুলিবর্ষণের মুখে পড়ে যান। গুলির আঘাতে আহত হয়ে সংজ্ঞা হারান অনেকে। যাঁদের মধ্যে ৫ মহিলাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে মৃত্যু হয় তাঁদের।

চার্চের ভিতরে থাকা মানুষজনকে বাঁচাতে বন্ধ করে দেওয়া হয় চার্চের প্রধান ফটক। বন্দুকবাজের হামলার খবর পেয়ে লড়াইয়ে নামেন চার্চের নিরাপত্তারক্ষীরা। কিছুক্ষণ গুলি বিনিময়ের পর মৃত্যু হয় হামলাকারীর। জখম হন ৩ নিরাপত্তারক্ষী। আহতদের ভর্তি করা হয় স্থানীয় হাসপাতালে। পরে দাগেস্তানের অর্থোডক্স চার্চে জঙ্গি হামলার দায় স্বীকার করে সন্ত্রাসবাদী সংগঠন আইএস।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button