Sports

আত্মপ্রকাশেই প্রসিদ্ধ, ক্রুণালদের দাপট, জয় পেল ভারত

ভারত এদিন ৬৬ রানে হারাল ইংল্যান্ডকে। ডেবিউতেই ক্রুণাল পাণ্ডিয়া ও প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ দেখিয়ে দিলেন যে তাঁরাও ভারতীয় দলে অনায়াসে জায়গা পাওয়ার যোগ্য।

পুনে : টি-২০ সিরিজে হারের পর একদিনের সিরিজে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ঘুরে দাঁড়াতে পারে কিনা সেদিকে তাকিয়েছিল ক্রিকেট বিশ্ব। ৩ ম্যাচের সিরিজের মঙ্গলবার ছিল প্রথম ম্যাচ। টস জিতেছিল ইংল্যান্ড ভারতকে ব্যাট করতে পাঠায়।

শুরুতে ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মা ছন্দে না থাকলেও শিখর ধাওয়ান ছিলেন দাপটে। রোহিত ২৮ রানে ফেরেন। এরপর বিরাট ও শিখরের যুগলবন্দি ভারতকে বড় রানের স্বপ্ন দেখাতে শুরু করে। বিরাট ৫৬ রানে ফেরার পর শ্রেয়স খুব দ্রুত ফেরেন ৬ রান করে।

কেএল রাহুল নেমে খেলতে থাকেন। শতরান থেকে মাত্র ২ রান দূরে থাকা অবস্থায় আউট হন শিখর। রাহুল করেন ৬২ রান। ভারতীয় একদিনের দলে প্রথম জায়গা পাওয়া ক্রুণাল পাণ্ডিয়া শেষে দুরন্ত ৫৮ রানের ইনিংস খেলে খেলার শেষ পর্যন্ত নট আউট থাকেন। হার্দিক অবশ্য মাত্র ১ রানেই ফেরেন এদিন। ভারত ৫০ ওভারের শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩১৭ রানের বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয়।

রান তাড়া করতে নেমে এদিন ইংল্যান্ডের জেসন রয় এবং জনি বেয়ারস্টো যেভাবে খেলতে থাকেন তাতে একটা সময় অনেক ক্রিকেট বোদ্ধারও মনে হচ্ছিল ইংল্যান্ডের জয় কেবল সময়ের অপেক্ষা। প্রায় ১০ রানের কাছে রান রেট ধরে রেখে খেলছিলেন ২ জনে। প্রতি ওভারেই ১টা ২টো করে চার হাঁকাচ্ছিলেন।

এই সময় ৪৬ রানে জেসন রয়কে ফিরিয়ে ইংল্যান্ডের দাপটে ভাঙন ধরিয়ে দেন ডেবিউ করা প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ। ইংল্যান্ডের ১৩৫ রানের মাথায় প্রথম উইকেট পড়ে। তখন হয়েছে মাত্র ১৪ ওভার। কিন্তু ফের প্রসিদ্ধ কৃষ্ণর ভেল্কি কাজে লাগে। ১ রানে প্রসিদ্ধ ফেরান বেন স্টোকসকে।

ব্যক্তিগত ৯৪ রানের মাথায় ফেরেন বেয়ারস্টো। এখান থেকে ভারতের দিকে ফের ঘুরে যায় খেলা। চাপে পড়ে ইংল্যান্ড। আর তারপর থেকে নিয়মিত উইকেট পতন হতে থাকে ইংল্যান্ডের।

অধিনায়ক মর্গান ২২ রানে, জোস বাটলার ২ রানে, স্যাম বিলিংস ১৮ রানে, মইন আলি ৩০ রানে, স্যাম কুরান ১২ রানে, টম কুরান ১১ রানে, আদিল রশিদ ০ রানে ফেরেন।

ইংল্যান্ডের খেলা শেষ হয় ২৫১ রান করে। ভারত জেতে ৬৬ রানে। প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ ৪ উইকেট নেন। ডেবিউ করা ক্রুণাল ১টি উইকেট নেন ও ৫৮ রান করেন। ম্যাচের সেরা হন শিখর ধাওয়ান।

Show More