Sports

আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে প্রথম টি-২০ হেলায় জিতল ভারত

বুধবার আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টি-২০ ম্যাচে ডাবলিনে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত। ধারে ভারে অনেকটাই এগিয়ে থাকা ভারতের জন্য একমাত্র চ্যালেঞ্জ ছিল ইংল্যান্ডের আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়া। পাশাপাশি আয়ারল্যান্ডের খেলোয়াড়দের সম্বন্ধে ধারণাও তাদের কাছে খুব পরিস্কার ছিলনা। কারণ এই দলটার সঙ্গে বড় একটা খেলা হয়নি ভারতের। তবু ভারতীয় স্পিনারদের দাপটে এদিন ২০৮ রান তাড়া করতে গিয়ে নাস্তানাবুদ হতে হয় আয়ারল্যান্ডকে। ভারত ম্যাচ জেতে ৭৬ রানে।

এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন আয়ারল্যান্ডের অধিনায়ক উইলসন। ব্যাট হাতে নেমে রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ানের ব্যাট প্রথম থেকেই চলতে থাকে। টি-২০-র মেজাজেই ব্যাট করতে থাকেন দুজনে। আয়ারল্যান্ডের বোলিংকে এদিন প্রবল দাপটে মারতে শুরু করেন এঁরা। দলগত ১৬০ রানের মাথায় ভারতের প্রথম উইকেট যখন পড়ে তখন ম্যাচে আর বাকি ৪ ওভার। ৪৫ বলে ৭৪ রান করা শিখর ধাওয়ান ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বাউন্ডারির কাছে ধরা পড়ে যান থম্পসনের হাতে। যদিও তার আগে উইকেট পড়তে পারত। কারণ রোহিত শর্মার তোলা ২টি সহজ ক্যাচ ফেলে দেয় আয়ারল্যান্ড। এরপর অষ্টাদশ ওভারে আউট হন রায়না (১০)। রোহিতের সঙ্গে স্লগ ওভারে জুটি বাঁধেন ধোনি। ধোনি নেমেই ১টি ছক্কা ও ১টি চার মারেন। শেষ ওভারে কিন্তু তাঁকে ফিরতে হয়। দলের রান তখন ২০২। পরের বলে ব্যক্তিগত ৯৭ রানের মাথায় ছক্কা হাঁকিয়ে শতরান করার চেষ্টা করতে গিয়ে ব্যাট চালান রোহিত। কিন্তু বল গিয়ে লাগে উইকেটে। আউট হন রোহিত। ব্যাট করতে নামেন অধিনায়ক কোহলি। কিন্তু ওভারের পঞ্চম বলে তিনিও আউট হন। এক ওভারের প্রথম ৫ বলে ভারতের ৩ উইকেট তুলে নেন চেস। যদিও ওভারের শেষ বলে তাঁকে ছক্কা মারেন পাণ্ডিয়া। ভারত ইনিংস শেষ করে ২০৮ রানে।

২০৯ রানের পাহাড় প্রমাণ টার্গেট তাড়া করতে নেমে প্রথম দিকে ভারতের ফিল্ডিং রেস্ট্রিকশনকে কাজে লাগিয়ে রান বাড়ানোর চেষ্টা করতে থাকেন আয়ারল্যান্ডের ব্যাটসম্যানেরা। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারেই বুমরাহর বলে ক্যাচ তুলে মাত্র ১ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার স্টারলিং। জুটি বাঁধেন শ্যানন ও বলবিরনি। কিন্তু বলবিরনিও ১১ রান করে দ্রুত ফেরেন। শ্যাননের সঙ্গে জুটি বাঁধেন সিমি সিং। শ্যাননের ব্যাট কিন্তু চলতে থাকে। একাই কার্যত আয়ারল্যান্ডের স্কোর বোর্ডের চাকা ঘোরাতে থাকেন তিনি। এদিন কিন্তু আয়ারল্যান্ডের উইকেট পতন চলতেই থাকে। অন্যদিকে চলতে থাকে শ্যাননের ব্যাট। অবশেষে ৬০ রান করে আউট হন তিনি। কেজে ও’ব্রায়েন (১০) এবং থম্পসন (১২) বাদ দিলে কেউ ২ অঙ্কের রানে পৌঁছতে পারেননি। আয়ারল্যান্ডের ইনিংসে ভাঙনটা ধরিয়ে দেন কুলদীপ যাদব। ৪ উইকেট একা তিনিই পান। চাহল ৪ ওভার বল করে পান ৩ উইকেট। এই ২ স্পিনারের দাপটে শেষ হয়ে যায় আয়ারল্যান্ডের জেতার আশা। ২০ ওভার খেলে তারা ৯ উইকেট হারিয়ে করে ১৩২ রান। আয়ারল্যান্ড হারে ৭৬ রানে।

(ছবি – সৌজন্যে – ট্যুইটার – বিসিসিআই)


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button