World

গদি হারালেন ইমরান খান, স্বাধীনতার পর এমন ঘটনা প্রথম

অনেক চেষ্টা করেও শেষরক্ষা করতে পারলেননা পাকিস্তানের সদ্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এবার লড়াই শরিফ বনাম কুরেশি।

ক্রিকেট কিংবদন্তী ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসার ৩ বছরের মধ্যে প্রবল বিরোধিতার মুখে পড়লেন। যার ফল হল সব চেষ্টার পরও তাঁকে তাঁর গদি থেকে সরতে হল।

পাকিস্তানের স্বাধীনতা প্রাপ্তির পর থেকে এই প্রথম দেশের কোনও প্রধানমন্ত্রীকে অনাস্থা ভোটে হেরে গদি হারাতে হল। ইমরান তাঁর প্রধানমন্ত্রী পদ ধরে রাখতে সবরকম চেষ্টা করলেও বিরোধীরা তো বটেই, এমনকি নিজের দলের মধ্যেই প্রবল বিরোধিতার সামনে হারতে হল তাঁকে।

অনাস্থা ভোটে ইমরানের বিরুদ্ধে পড়ে ১৭৪টি ভোট। যা ইমরানের সব লড়াইয়ে যবনিকা পতনটা ঘটিয়ে দেয়। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী পদ এখন ফাঁকা। সেই গদিতে কে বসবেন তার লড়াই শুরু হয়ে গেছে।

পাকিস্তানের মসনদ দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে রয়েছেন ২ জন। একজন ইমরানেরই দল তেহরিক-ই-ইনসাফ-এর শাহ মাহমুদ কুরেশি। অন্যজন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই শাহবাজ শরিফ।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই লড়াইয়ে পাল্লা ভারী ৭০ বছরের শরিফের। যা পরিস্থিতি তাতে পাকিস্তানের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে সোমবারই পরিস্কার হয়ে যাবে কে হচ্ছেন পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী।

ইমরান খান পদচ্যুত হওয়ার পর পাকিস্তান পিপলস পার্টি-র চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো পাকিস্তানের আম জনতাকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, পুরনো পাকিস্তানে স্বাগত। প্রসঙ্গত ইমরান খানের ক্ষমতায় আসার আগে স্লোগানই ছিল নয়া পাকিস্তান। অর্থাৎ নতুন পাকিস্তান। তারই পাল্টা দিলেন বিলাওয়াল। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.