World

দেশের অর্ধেকটাই চলে গেল জলের তলায়, ৪০ লক্ষ মানুষ গৃহহীন

প্রবল বৃষ্টি, বাড়তে থাকা নদীর জলে দেশের প্রায় অর্ধেকটা চলে গেছে বন্যার কবলে। গত একশো বছরে এমন বন্যা দেখেননি সে দেশের মানুষ।

প্রবল বৃষ্টিতে অসম ও মেঘালয়ের অবস্থা শোচনীয়। বন্যা পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপের দিকে যাচ্ছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন। মৃতের সংখ্যা অন্তত ৪০, বহু এলাকা জলের তলায় হারিয়ে গেছে। খারাপ অবস্থার শিকার ত্রিপুরাও।

এমন এক ভয়ানক বন্যা পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যখন ভারতের উত্তরপূর্ব ভাগের ৩ রাজ্য যাচ্ছে, তখন পড়শি বাংলাদেশের প্রায় অর্ধেকটাই চলে গেছে জলের তলায়। বিশেষত অতিভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বাংলাদেশের উত্তরপূর্ব প্রান্তের জেলাগুলিতে।

প্রায় সবটাই জলের তলায় চলে গেছে সুনামগঞ্জ ও সিলেট-এর। এ ২টি জেলায় বিদ্যুৎ সংযোগই নেই। চারিদিকে জল ভাসছে। মানুষ তাঁদের মাথার ওপরের ছাদটা ছেড়ে প্রাণ বাঁচাতে পরিবার নিয়ে পালাচ্ছেন।

গঙ্গা ও ব্রহ্মপুত্র অববাহিকায় পরিস্থিতি ভয়ানক। এছাড়া নদীমাতৃক বাংলাদেশের প্রায় সব নদীই বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে। কুল ছাপিয়ে জল হুহু করে ঢুকছে লোকালয়ে।

গত শনিবার বর্ষার বৃষ্টি খোদ রাজধানী ঢাকাতেই এমন চরম আকার নেয় যে প্রায় গোটা শহরটাকেই গৃহবন্দি করে দেয়। জলের তলায় চলে যায় শহরের বহু এলাকা।

সিলেটে গত ১২২ বছরে এমন বন্যা দেখা যায়নি বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। দেশের প্রায় ৪০ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছেন।

৩ লক্ষ মানুষ কাটাচ্ছেন বিদ্যুৎহীন জলবন্দি অবস্থায়। বন্যার্তদের উদ্ধারে বাংলাদেশ সরকার সেনা নামিয়েছে। তৎপর রয়েছে উপকূলরক্ষী বাহিনীও। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.