State

শান্তির ভোটে অশান্ত ভাঙড়

West Bengal Assembly Election 2016মোটের ওপর শান্তিপূর্ণ ভোটেও দিনভর অশান্ত রইল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়। এদিন বেলা ১০টা নাগাদ ভাঙড়ে তৃণমূল-সিপিএম সংঘর্ষ বাধে। অবস্থা সামলাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে লাঠি চালাতে হয়। সংঘর্ষের ঘটনায় দু’পক্ষের ৪ জন আহত হন। তাঁদের মধ্যে ২ জনের আঘাত যথেষ্ট গুরুতর। আহত হন একজন মহিলাও। এরপর বেলা ১টা নাগাদ ভাঙড়ের বোসপুকুরে গ্রামে ঢুকে দুষ্কৃতী তাণ্ডবের অভিযোগ ওঠে। সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনী চেষ্টা করেও প্রথমে ঢুকতে পারছিল না। পরে যদিও অবস্থা আয়ত্তে আসে। এর পরের ঘটনা সাতুলিয়ায়। দুপুরের দিকে দু’পক্ষে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হন। এঁরা অধিকাংশই তৃণমূল কর্মী। আহতদের অভিযোগ তাঁদের সিপিএম কর্মীরা আচমকাই আক্রমণ করে ও মারধর শুরু হলে প্রাণ বাঁচাতে পুকুরে ঝাঁপ দেন তাঁরা। তাঁদের দাবি, যারা আক্রমণ করে তারা সকলেই আরাবুলের হয়ে কাজ করতেন। এখন শিবির বদলে সিপিএমে যোগ দিয়েছেন। যদিও তৃণমূলের অন্দরমহলে অন্য গুঞ্জন শোনা গেছে। সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া রেজ্জাক মোল্লাকে টিকিট দেওয়া ভাঙড়ে তৃণমূলের অন্যতম হাতিয়ার আরাবুল ইসলাম মন থেকে মেনে নিতে পারেননি। সেই ক্ষোভই ফ্র্যাঙ্কেস্টাইন হয়ে ভোটের ময়দানে প্রতিফলিত হচ্ছে কিনা তা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকেই। এমনকি খোদ রেজ্জাক মোল্লাও যে আরাবুলের কার্যকলাপে নাখুশ তা এদিন প্রকাশ করতে দ্বিধা করেননি তিনি। রেজ্জাকের দাবি আরাবুল একসময় এলাকায় ফ্যাক্টর হলেও এখন তাঁর অবস্থা ট্রাক্টরের মত।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.