World

দুরুদুরু বুকে নমোনমো করে বিয়ে করে নিলেন তরুণ তরুণী

বিয়েটা হওয়ার কথা ছিল আগামী মে মাসে। কিন্তু ততদিনে কী হয় তা কারও জানা নেই। তাই দুরুদুরু বুকে নমোনমো করে বিয়েটা করে নিলেন তরুণ তরুণী।

আকাশে উড়ছে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান। বেজে চলেছে যুদ্ধবিমানের অস্তিত্ব বোঝাতে সাইরেন। শহরটা খাঁ খাঁ করছে। রাস্তায় শুধু সেনা। মানুষজন কোনওক্রমে বাঙ্কারে পরিবার নিয়ে মাথা গুঁজেছেন। পেটে খাবার নেই। তার মধ্যে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা।

দেশের সরকার সাধারণ মানুষকেও অস্ত্র তুলে নিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়ার আহ্বান জানিয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা প্রাণটা বাঁচবে কিনা তার কোনও নিশ্চয়তা নেই।

যে কোনও সময় রাশিয়ার ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্রে গুঁড়িয়ে যেতে পারে তাঁদের আস্তানা। এমন এক ভয়ংকর পরিস্থিতিতে কাটাচ্ছে কিয়েভ শহর। আর সেখানেই এই পরিস্থিতিতে কোনওরকমে নমোনমো করে বিয়েটা সেরে ফেললেন এক তরুণতরুণী।

তাঁদের বিয়ে স্থির ছিল আগামী মে মাসে। নিপার নদীর তীরে একটি রেস্তোরাঁর বারান্দায় অপরূপ প্রকৃতিকে সাক্ষী রেখে তাঁদের বিয়ের আয়োজন স্থির ছিল।

কিন্তু দেশের পরিস্থিতি আচমকা বদলে যায়। রাশিয়া তাঁদের দেশ আক্রমণ করেছে। রাশিয়ার সেনা হুহু করে ঢুকছে দেশে। রাজধানী কিয়েভ দখলে নিতে ঢুকে পড়েছে রাশিয়ার সেনা।

এই পরিস্থিতিতে তাঁদের ভবিষ্যৎ তাঁদের জানা নেই। বেঁচে থাকবেন কি না তাও জানা নেই। তাই বেঁচে থাকতে ২টি প্রাণ এক হওয়াটা অন্তত হয়ে নিলেন ইয়ারিনা আরিয়েভা ও স্যাতোস্লাভ।

একটি বৌদ্ধ গুম্ফায় বিয়েটা সেরে ফেললেন তাঁরা। যতক্ষণ বিয়ে চলল ততক্ষণ তাঁদের কানে বেজে চলল সাইরেনের আওয়াজ। রাশিয়ার বিমান তখন উড়ছে কিয়েভের আকাশে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button