National

ভয়াবহ, ভয়ানক, করুণ, বলল শীর্ষ আদালত

৩টি শব্দে দিল্লির পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করল সুপ্রিম কোর্ট। সেখানে করোনা চিকিৎসার পরিস্থিতি নিয়ে এভাবেই কেজরিওয়াল সরকারকে ভর্ৎসনা করল শীর্ষ আদালত।

নয়াদিল্লি : হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলির অবস্থা শোচনীয়। দেহ পড়ে রয়েছে ওয়ার্ডে। এমনকি হাসপাতালের লবি, ওয়েটিং রুমেও পড়ে থাকছে দেহ। সংবাদপত্রের খবরের প্রসঙ্গ টেনে এটা একটা অত্যন্ত ভয়াবহ, ভয়ানক, করুণ পরিস্থিতি বলে ব্যাখ্যা করল শীর্ষ আদালত। এদিন কার্যত করোনা চিকিৎসা পরিস্থিতি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের ভর্ৎসনার শিকার হল দিল্লি সরকার।

করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দেহের সঙ্গে দিল্লি সরকার যা করছে তা অত্যন্ত অসম্মানজনক বলেও জানিয়ে দেয় সুপ্রিম কোর্টের ৩ বিচারপতি অশোক ভূষণ, এসকে কউল এবং এমআর শাহ-র বেঞ্চ। বিচারপতিরা উদ্বেগ প্রকাশ করে জানান, করোনা রোগীর মৃত্যুর পরও তাঁর দেহ অসুস্থ রোগীর পাশেই ফেলে রাখা হচ্ছে। এমনকি করোনায় মৃত্যু হলে তাঁদের পরিবারকে মৃত্যু সংবাদ জানানো পর্যন্ত হচ্ছেনা। বেশ কিছু ক্ষেত্রে করোনায় মৃত রোগীর শেষকৃত্যে পর্যন্ত পরিবারের লোক থাকতে পারেননি।

দিল্লির আপ সরকারকে আরও প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। সুপ্রিম কোর্ট এদিন চেন্নাই বা মুম্বইয়ের তুলনায় দিল্লিতে করোনা পরীক্ষা অনেক কম হচ্ছে কেন সে প্রশ্নও তোলে। সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, কোনও প্রযুক্তিগত কারণ দেখিয়ে করোনা পরীক্ষা করতে আসা কাউকে ফেরানো যাবেনা। তাঁদের পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে। প্রক্রিয়াকে সরল করতে হবে। এদিন দিল্লির পাশাপাশি মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু ও পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করে শীর্ষ আদালত। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button