World

টগবগ করে ফুটছে নদী, হাজারও সমস্যা মুক্তি নদীর জলে

বিশ্বের একমাত্র ফুটন্ত নদী এটি। যে নদীর জল টগবগ করে ফুটে চলেছে। সবুজে ঘেরা এই নদী প্রকৃতির অন্যতম আশ্চর্যও বটে।

চারধারে সবুজ আর সবুজ। এক নিঃশব্দ সবুজ প্রকৃতির বুক চিরে এ নদী বয়ে চলেছে। তবে এ নদী আর পাঁচটা নদীর মত নয়। এ নদী ফুটছে। নদীর জল টগবগ করে ফুটে চলেছে। যাতে ডিম ফেললে সিদ্ধ হতে সময় নেয় না। জলে চা পাতা ভেজালে দুর্দান্ত এক পেয়ালা ধোঁয়া ওঠা চা পান করা যেতেই পারে।

বন্য অনেক প্রাণি ভুল করে এর জলে নেমে পড়লে তাদের আর রক্ষে নেই। সেখানেই ভবলীলা সাঙ্গ হয় তাদের। নদীর ধারে দাঁড়ালে টগবগ করে জলকে ফুটতে দেখা যায়। যার জেরে নদীর ওপর ধোঁয়ার মত হয়ে থাকে।

স্থানীয়রা অবশ্য এ নদীকে পবিত্র নদী হিসাবেই দেখেন। তাঁদের মতে এ নদীর জল অনেক শারীরিক সমস্যা মিটিয়ে দিতে সক্ষম। সবচেয়ে বড় কথা এ নদী হল পৃথিবীর উষ্ণতম নদী। বিশ্বের একমাত্র ফুটন্ত নদী।

পেরুভিয়ান অ্যামাজনের জঙ্গলের মধ্যে শ্যানেই-টিমপিশকা নামে এই নদীটি যেমন সুন্দর, তেমনই ভয়ংকর। তাই এ নদীকে চোখের দেখা দেখতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর্যটকেরা হাজির হন।


ট্রেক করে শ্যানেই-টিমপিশকার কাছে পৌঁছন পর্যটকেরা। অবাক হয়ে দেখেন এই ফুটন্ত চেহারা। তবে জলে নামার সাহস দেখানোটা বোকামো ছাড়া আর কিছু নয়।

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, জিওথার্মাল প্রভাবেই এ নদীর জল এমনভাবে ফুটছে। মাটির তলা প্রাকৃতিকভাবেই এই উত্তাল জলকে গরম করে দিচ্ছে। যেমনটা উষ্ণ প্রস্রবণগুলির ক্ষেত্রেও দেখতে পাওয়া যায়। তবে কোনও নদীর জলে এমনটা কেবল এই শ্যানেই-টিমপিশকা-তেই দেখতে পাওয়া যায়।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button