World

আজব মিউজিয়াম, গেলে শুধুই পায়খানা দেখতে পাওয়া যায়

মিউজিয়ামে যেতে অনেকেই পছন্দ করেন। কারণ সেখানে বহু প্রাচীন জিনিস দেখতে পাওয়া যায়। এবার একটি মিউজিয়ামে শুধুই দেখা মিলবে পায়খানার।

একটা আস্ত মিউজিয়াম, পুরোটাই পায়খানা। নানা আকারের, নানাধরনের পায়খানা। তাদের চেহারা ও পরিমাণও ভিন্ন। তবে প্রতিটিই যথেষ্ট নজর কাড়া। ভাবতে একটু কেমন যেন মনে হতেই পারে। পায়খানা ভরা মিউজিয়াম।

যাঁদের এ বিষয়ে উৎসাহ আছে তাঁরা বিনামূল্যেই এই মিউজিয়ামে প্রবেশ করতে পারেন। মিউজিয়ামটির নাম দেওয়া হয়েছে পুজিয়াম। ইংরাজি শব্দ পুপ অর্থাৎ পায়খানা। আর মিউজিয়াম, এই ২ শব্দের মেলবন্ধনেই তৈরি হয়েছে পুজিয়াম।

একটা মিউজিয়াম, পুরোটাই নানা প্রাণির মলে ভরা। যেখানে মূলত জায়গা পেয়েছে ডাইনোসরের পায়খানা। জীবাশ্মে পরিণত হওয়া এই নানা ধরনের ডাইনোসরের পায়খানা সংগ্রহ করা এক ব্যক্তির শখ।

তাঁর সংগ্রহে আরও অন্য প্রাণির পায়খানাও রয়েছে। রয়েছে, তবে সবই জীবাশ্মে পরিণত হওয়া। অর্থাৎ বহু প্রাচীনকালে যে জীবেরা পৃথিবীতে ঘুরত তাদের পায়খানার যে জীবাশ্ম নানা স্থান থেকে উদ্ধার হয়েছে সেগুলির সংগ্রহ রয়েছে ওই ব্যক্তির কাছে। তিনি সেই প্রায় ৮ হাজার মলের জীবাশ্ম নিয়ে একটি মিউজিয়াম তৈরি করেছেন। যেখানে কেবল রয়েছে পায়খানার জীবাশ্ম।


অ্যারিজোনার উইলিয়ামস শহরে এই পুজিয়ামটি তৈরি করা হয়েছে। জর্জ ফ্র্যান্ডসেন নামে এক ব্যক্তি এই পায়খানা সংগ্রহ করে এখন বিশ্বখ্যাত। তাঁর এই পায়খানার মিউজিয়ামে পায়খানার প্রদর্শনী দেখতে অনেক মানুষের ভিড় হচ্ছে।

কেবলমাত্র প্রাচীন প্রাণিদের পায়খানার জীবাশ্মও যে সংগ্রহে রাখার একটি বস্তু হতে পারে তা হয়তো জর্জকে না দেখলে অনেকের মাথায় আসত না। তবে তিনি যে সংগ্রহশালা তৈরি করেছেন তা যেমন বিরল, তেমনই তথ্য বহুল।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button