World

চা নয়, দেশের কথা ভেবে অন্য পানীয় খান, আবেদন সরকারের

দেশের পরিস্থিতি বিবেচনা করে চা থেকে দূরে থাকুন। সে জায়গায় বেছে নিন অন্য পানীয়। তাতে বেকারদেরও চাকরি হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে আবেদন সরকারের।

দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি খারাপ। রাজকোষ প্রায় শূন্য। কাটছাঁট করেও আর্থিক দুরবস্থা সামাল দেওয়া যাচ্ছেনা। এই অবস্থায় আগেই দেশের মানুষকে চা পান থেকে দূরে থাকার আবেদন করেছে পাক সরকার।

এবার চা একেবারেই বর্জন করে অন্য পানীয়ের রাস্তা দেখাল সেই পাক সরকারই। মানুষের কাছে তাদের এই অন্য পানীয়ের বার্তা পৌঁছে দিতে সরকার বেছে নিয়েছে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়কে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে দেশিয় ২টি পানীয় প্রচারের কথা বলা হয়েছে।

পাক সরকার তার দেশের মানুষের কাছে আবেদন করেছে যে চা আমদানি করা অসম্ভব হয়ে উঠেছে। সে জায়গায় দেশের মানুষ যেন দেশিয় ২টি পানীয় ছাতুর সরবত এবং লস্যিতে মনোনিবেশ করেন।

ছাতুর সরবত বা লস্যি শরীরের পক্ষেও ভাল। আর তাতে দেশিয় অর্থনীতিরও ভাল হবে। স্বাস্থ্যকর পানীয় পানের অভ্যাস করলে তা দেশের অনেক বেকারের জন্য কর্মসংস্থানের রাস্তাও খুলে দেবে বলে মনে করছে পাক সরকার।

ছাতু বা লস্যির জন্য দেশকে পরমুখাপেক্ষী হতে হবে না। এর কাঁচামাল পাকিস্তানেই সহজলভ্য। কিন্তু চা বাইরের দেশ থেকে আনাতে হয়। তার খরচ বহন করা সরকারের পক্ষে সম্ভব নয়।

ছাতুর সরবত বা লস্যির অভ্যাস কেন করা দরকার তা বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে সাধারণ মানুষকে বুঝিয়ে বলার দায়িত্ব দিয়েছে পাক সরকার। যা পান করা সকলকে সুস্থও রাখবে আবার দেশের অর্থনীতির ওপরও চাপ তৈরি করবে না। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.