National

মার্চ মাসের পর দেশে সবচেয়ে নিচে নামল দৈনিক সংক্রমণ

দেশে দৈনিক সংক্রমণ এদিন যেখানে নামল তা গত মার্চ মাসের পর আর দেখা যায়নি। সেদিক থেকে অবশ্যই এই সংখ্যা স্বস্তির।

দেশে দৈনিক সংক্রমণ এদিন যেখানে নামল মার্চ মাসের পর সেখানে আর কোনও দিন নামেনি। সেদিক থেকে দৈনিক সংক্রমণে এই হ্রাস অবশ্যই আনন্দের। কিন্তু স্বস্তি তখনই উপভোগ্য হবে যদি এই নিম্নগামী ধারাবাহিকতা বজায় থেকে যায়।

দেশে দৈনিক সংক্রমণ বেশ কিছুদিন ধরেই ৩৫ হাজার থেকে ৪৫ হাজারের মধ্যেই ঘোরাফেরা করছে। এদিন তা ২৫ হাজারে নেমে গেল।

একদিনে দেশে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ২৫ হাজার ৭২ জন। দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ২৪ লক্ষ ৪৯ হাজার ৩০৬ জন।

এদিন ১২ লক্ষ ৯৫ হাজার ১৬০টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে দেশে। আগের দিনের থেকে ৩ লক্ষ কমেছে নমুনা পরীক্ষা। এদিন মৃতের সংখ্যা গত দিনের তুলনায় কমেছে।


গত একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৩৮৯ জনের। দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ৩৪ হাজার ৭৫৬ জন। দেশে মৃত্যুর হার দাঁড়িয়ে আছে ১.৩৪ শতাংশে।

এদিন মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ১৪৫ জনের। মহারাষ্ট্র ছাড়া এমন কোনও রাজ্য দেশে নেই যেখানে ৩ অঙ্কে রয়েছে একদিনে মৃতের সংখ্যা।

দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা এদিন কমেছে। এদিন কমেছে ১৯ হাজার ৪৭৪ জন। দেশে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ৩৩ হাজার ৯২৪ জন। দেশে অ্যাকটিভ রোগীর হার দাঁড়িয়ে আছে ১.০৩ শতাংশে।

এদিকে দেশে সংক্রমিতের চেয়ে সুস্থ হয়ে হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা বেশি হয়েছে। গত একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৪ হাজার ১৫৭ জন।

দেশে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৬ লক্ষ ৮০ হাজার ৬২৬ জন। সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭.৬৩ শতাংশে। — ভারত সরকারের দৈনিক আপডেটের সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button