Kolkata

করোনা রুখতে কামান আনল পুরসভা

পুর এলাকায় করোনা সংক্রমণে লাগাম দিতে এবার একটি অত্যাধুনিক জীবাণুনাশক ছড়ানোর কামান আনল পুরসভা। ৮০ মিটার পর্যন্ত তরল ছড়িয়ে দিতে সক্ষম এই শক্তিশালী কামানটি। কামানটি কিনতে খরচা পড়েছে ২৭ লক্ষ টাকা।

কলকাতা : দেখতে ঠিক কামানের মত। এই বিশেষ প্রযুক্তির ক্যানন একসঙ্গে একটা বড় অংশকে জীবাণুমুক্ত করার ক্ষমতা ধরে। আদপে একটি স্প্রে মেশিন এটি। যার ক্ষমতা অনেকটাই বেশি। কলকাতার রাস্তায় এই কামানকে ঘুরতে দেখা যাবে কদিনের মধ্যেই। শনিবার নারকেল ফাটিয়ে এই কামানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কলকাতা পুরসভার প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। তিনি আশা ব্যক্ত করেন এই কামান থেকে ছড়ানো রাসায়নিক মেশানো তরল করোনা ড্রপলেটকে নষ্ট করে ফেলতে সক্ষম।

কামানটি কিনতে খরচা পড়েছে ২৭ লক্ষ টাকা। এর মুখের কাছে রয়েছে একটি অতিকায় ফ্যান। যা চারিদিকে ঘুরে ঘুরে রাসায়নিক মিশ্রিত তরল ছড়াতে থাকবে। ৮০ মিটার পর্যন্ত তরল ছড়িয়ে দিতে সক্ষম এই শক্তিশালী কামানটি। প্রতি মিনিটে ২০০ লিটার পর্যন্ত তরল ছড়াতে পারে এটি। এটির চারিদিকে ঘোরার ক্ষমতার জন্য একসঙ্গে একটি জায়গায় চারধারে জীবাণুমুক্ত করা সম্ভব।

কামানটিতে একটি ট্যাঙ্ক রয়েছে। যাতে রাসায়নিক মিশ্রিত তরল রাখা যাবে। সর্বোচ্চ ১০ হাজার লিটার পর্যন্ত তরল ট্যাঙ্কে রাখা যাবে। কামানটি একটানা ৫০ মিনিট কাজ করে যেতে পারে। এই কামান পুর এলাকাগুলিকে জীবাণুমুক্ত করে তুলতে সাহায্য করবে। যেখানে কামান ঢুকতে পারবে না সেসব গলিতে এখন যেমনভাবে জীবাণুমুক্ত করার কাজ হচ্ছে তেমনই হবে। বড় রাস্তায় এই কামান দারুণ কার্যকরী হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.