Tuesday , September 25 2018
Kali Puja

কালীপুজোয় চোদ্দো শাকের কথা

প্রতিবছর কালীপুজোর আগের দিন চতুর্দশীতে যখন বাজারে যাই, তখন গিয়ে দেখি বিভিন্ন ধরনের শাকপাতা কুচি কুচি করে কেটে ডাঁই দিয়ে রেখেছে। জিজ্ঞাসা করলে উত্তর আসে চোদ্দোটা শাকই আছে এর মধ্যে। এযুগে মিথ্যার যেন আর শেষ নেই। কিনে এনে বাড়িতে শাকগুলো বাছলে দেখা যাবে খুব বেশি হলে স্মৃতিশাস্ত্র সম্মত শাক পাওয়া যায় সাকুল্যে পাঁচ সাতটা। বাকিগুলো বিভিন্ন ধরনের শাক ও গাছের পাতা। যেমন চোদ্দো শাকের মধ্যে কোটা পূরণ করার জন্য ভেড়ানো হয় লাল শাক, সজনে গাছের পাতা, পুঁই কলমি গুঁড়িকচুর পাতা, থানকুনি, লাউ ও কুমড়ো শাকের পাতা, পলতা ও তেলা কুচোর পাতা ইত্যাদি। এসব পাতাগুলো এমন কুচিকুচি করে কাটা হয় যে, কারও বোঝার সাধ্য নেই কোনটা কোন গাছের পাতা বা কি শাক? এসব আমার চোখে দেখা। সারাটা জীবন কোনও বাঙালির চোদ্দোশাক খাওয়া তো দূরের কথা, চোখে দেখার সৌভাগ্য কারও কখনও হবে বলে আমার অন্তত মনে হয় না।

কালীপুজো উপলক্ষে কৃষ্ণা চতুর্দশী তিথিতে চোদ্দো শাক খাওয়ার প্রথা একটা প্রচলিত আছে, সঙ্গে চোদ্দ প্রদীপ ধরানো। চোদ্দ প্রদীপ আসলে ঊর্ধ্বতন চতুর্দশ পুরুষের প্রতীক। তাঁদের আত্মার উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জানানো। পরম্পরাগত কথা, কালীপুজোর আগের দিন পরলোকগত পূর্বপুরুষদের আত্মা দেখতে আসেন তাঁদের পূর্ব আবাসস্থলগুলি। তাই বাড়ির প্রতিটি আগমন ও নির্গমন স্থানে প্রদীপ জ্বালিয়ে রাখার উদ্দেশ্য হল, তাঁদেরই পথ দেখানোর আলো। চতুর্দশ পুরুষের স্মরণে তাঁদের আশীর্বাদলাভও হয়। এ যে হিন্দুবিশ্বাস।

দেহের সুস্থতা, রোগপ্রতিরোধক শক্তির প্রতীক হল চোদ্দ শাক। পশ্চিমবাংলা তথা ভারতের যে কোনও প্রান্তের কোনও বাঙালি সারাজীবন কার্তিকী কৃষ্ণা চতুর্দশীতে চোদ্দ শাক খেয়েছেন বলে আমার জানা নেই। তবে নামে ১৪ শাক প্রায় সব বাঙালি কখনও না কখনও খেয়েছেন। যারা চোদ্দ শাক বলে শাক বিক্রি করেন, তারা নিজে ও তাদের চোদ্দপুরুষ চোদ্দ শাক দেখেছেন, খেয়েছেন, আজ পর্যন্ত আমার দৌড়ের মধ্যে কাউকে দেখিনি।

বর্তমানে চোদ্দ শাকের মধ্যে সজনেপাতা, পুঁই, কলমী, পালং, নটে, গিমের সঙ্গে অন্যান্য নানান শাক মিলিয়ে একশ্রেণির অর্থলোভী প্রতারণা করে চলেছে প্রতি বছর। বিখ্যাত পণ্ডিত স্মার্ত রঘুনন্দনের মতে চোদ্দো শাকের তালিকায় আছে – নিম, সরষে, পলতা, হিঞ্চে, ঘেঁটু, ওল, বেতো, কেঁউ, কালিকাসুন্দি, জয়ন্তি, শালিঞ্চা, গুলঞ্চ, শতপুষ্পা ও সুষনি শাক।

মতান্তরে – ওল, কেঁউ, বেতো, সর্ষে, কালিকাসুন্দি, নিম, জয়ন্তি, শাঞ্চে, হেলঞ্চ, গুলঞ্চ, পলতা, সৌরভ, ভাঁটপাতা ও সুষনি শাক। তবে চোদ্দরকম শাক খাওয়ার কোনও কথা উল্লেখ নেই পুরাণ ও তন্ত্রে।



Advertisements

About Sibsankar Bharati

স্বাধীন পেশায় লেখক জ্যোতিষী। ১৯৫১ সালে কোলকাতায় জন্ম। কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্যে স্নাতক। একুশ বছর বয়েস থেকে বিভিন্ন দৈনিক, সাপ্তাহিক পাক্ষিক ও মাসিক পত্রিকায় স্থান পেয়েছে জ্যোতিষের প্রশ্নোত্তর বিভাগ, ছোট গল্প, রম্যরচনা, প্রবন্ধ, ভিন্নস্বাদের ফিচার। আনন্দবাজার পত্রিকা, সানন্দা, আনন্দলোক, বর্তমান, সাপ্তাহিক বর্তমান, সুখী গৃহকোণ, সকালবেলা সাপ্তাহিকী, নবকল্লোল, শুকতারা, দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়ার নিবেদন 'আমার সময়' সহ অসংখ্য পত্রিকায় স্থান পেয়েছে অজস্র ভ্রমণকাহিনি, গবেষণাধর্মী মনোজ্ঞ রচনা।

Check Also

Ganesha

গণেশের দেহের প্রতিটি অঙ্গই চমকে দেওয়ার মত বার্তা বহন করছে!

গণেশের দেহের প্রতিটি অঙ্গই চমকে দেওয়ার মত বার্তা বহন করছে!

41 comments

  1. ঠিক বাস্তবটাই তুলে ধরেছেন,ভালো লাগলো পড়ে

  2. ভালো লাগলো ধন্যবাদ।

  3. খাঁটি কথা | খাদ্য অখাদ্য সব রকম শাক পাতাই মেশানো হয় এই চোদ্দ শাকে, কোনদিন হয়ত বিচুটি পাতাও মেশাবে |

  4. সাজনে পনকা পালং কলমি কেচুনে পাট লটে মুলো সুসুনি কাকবদে হেনচা কুলেকারা পুরপনজে পুই নটে মেতি

    • সব পঞ্জিকাতে চৌদ্দ শাকের নাম থাকে । দু’একটি নামের রকমফের হয় । যে কোনো পুরনো ভালো কবিরাজি বই খুললে প্রতিটি শাক সম্পর্কে সম্যক ধারণা পাওয়া সম্ভব । আচারবশতঃ চৌদ্দ শাক ভক্ষণ রীতি চলে আসছে স্মরণাতীতকাল থেকে।

  5. Ami khai ni karon holo aktay 14 purus dekhini kothay likha ache keo jodi amk dekhate pare tobei khabo 14 shakh

  6. Jante pere valo laglo r khabona

  7. KHUB BHALO LAGLO EI BISOYE JANTE PERE

  8. একদম ঠিক কথা

  9. Sibai procholito dharonar pichone chote, jachi kore na sotty ta. Bastob ta tule dhorechen, khub valo laglo.

  10. 1.dam thik tai to o. Pat tule deache

  11. আমি আপনার লেখার একনিষ্ঠ ভক্ত…আপনার চরনে ভক্তিযুক্ত প্রনাম জানালাম দয়াকোরে গ্ৰহন করুন…

  12. ভালো লাগল লেখাটি পড়ে |

  13. চমৎকার শিক্ষণীয় । ভাল লাগলো ।

  14. চোদ্দো শাক. বলে. যেটা. কিনে. খাওয়া. হয় ,চোদ্দো শাক. হলেও,,সেই চোদ্দো. শাক. নয়,,যে শাক গুলো নাম পন্জিকাতে. লেখা. বা. খেতে. হয়,,,উপকার. হয়,,জয়ন্তী,ওল এই. রকম. অনেক. উপকারী. শাক

  15. akhane ank shak ar nm protham sunlam…..tbe ank kichu jana gelo.

  16. গ্রামে চোদ্দ শাক পাওয়া কোনো ব্যাপার নয়,,,,,লাউ কুমড়ো পুঁই শুশনি সর্ষে পালম নোটে থানকুনি বর্মা কলমি হিংচে গিমেসাক সজনে কুলপো,,,,মেথি পিড়িং মুলো ও এই সময় চাষ হয়ে থাকে ,,,

  17. Sonali Basu Bhattacharjee

    Amra uttar kolkatay thaktam. Chhotobelay maa eidin niyam Kore choddoshak khawaten. Khub kharap khete. Shaak jathajatho use hoto bole. Akhan salt lake a thaki.Oi kuchono shaak. Tai niyam kore Khai. Bhebenie choddoshak e diyechhe. Asale nostalgia seI j baba maa dada Didi r saat aatjan kajer lokejan sakaler smriti baddo Mone pare. Anekei toe AJ nei. Sneho bhalobasa makha nischinta ashroyer see dingulo jagiye rakhte nistthaa Kore Mahalaya shuni. Choddoshak Khai. Pideem jwali. Pideem kathata ichchhe Kore use korlam.takhan haasi peto AJ baro miss kori.

  18. সঠিক তথ্য সমৃদ্ধ লেখা শেয়ার করলাম

  19. Age thakai jantam..amader dhormio bongso tobe akhon ai 14 rokom sag powa dai..

  20. Khb valo lglo information ta

  21. SASTRA MATE JE SHAK GULIR KATHA BOLECHEN SABGULO EI SIJAN E PAOA JAI KI?

  22. যাদের জন্য লেখা তারা কি এরপর ১৪ শাক খাওয়া বন্ধ করবে।আশা কম।

  23. Sei shak kinte holo 10 taka prati 100 gm.hisebe.

  24. বছরে একটাদিন একজন সবজি বিক্রেতে কিছু টাকা ইনকাম করছে তাকেও কাঠি করছেন মশাই.. 🙁
    এই ব্যাস্ততার দিনে কার এতো সময় আছে যে ৭ রকম শাকই জোগাড় করতে পারে।।

  25. Ekdom thik katha. .sab moner byapar….amra probasi bangali ra 14 saak pai na…moner bhokti r baro der shrodhha tai asol ..

  26. Choddo shaak khub tasty.Taai khaai.

  27. Pro ki to that’s jante parlam.ami aponar lekher ekjon gunomugdha vokto .proti ti lekha e porber chests kori .hoga jog er kono poth echilona .ey tuku ganaty pere vision valo lagchy pronam

  28. Jabab nei apner Tik katha bolechen

  29. Khub bhalo laglo.
    Amar pranam neben

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.